বৃহস্পতিবার, ১১ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

খাল দখল করে মাছ ধরা কে কেন্দ্র করে অস্ত্রের কোপ,জখম ৭,গ্রেফতার ১

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি,ক্যানিং –মন্দিরের খাল দখল করে মাছ ধরা কে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা ছড়ালো বাসন্তীতে। ঘটনায় ধারালো অস্ত্রের কোপে গুরুতর জখম হয়েছেন মন্দির কমিটির সাতজন সদস্য। আহতরা হলেন বিমলেন্দু মন্ডল,শান্তনু মন্ডল,অসিত ঘরামী,কৃপাসিন্ধু ঘরামী দুরান্ত মন্ডল,অবনী মন্ডল,প্রদীপ ঘরামী।
ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বাসন্তী থানার ফুলমালঞ্চ গ্রাম পঞ্চায়েতের ২ নম্বর সোনাখালি গ্রামে।স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে একটি খাল নিয়ে সমস্যা তৈরী হয়। তাতে করে থানা পুলিশ থেকে শুরু করে আদালত পর্যন্ত গড়ায় এই ঘটনা। পরে আদালতের নির্দেশে গত দুবছর আগে ৮৪ শতক খাল টি নিজের কব্জায় ফিরে পায় “রাধাগোবিন্দ মন্দির” কমিটির লোকজন।অভিযোগ এদিন বিকালে মনোরঞ্জন মন্ডলের নেতৃত্বে নিতাই নস্কর,রঞ্জন নস্কর,সমর নস্কর,দীপক নস্কর,
হারা নস্কর,বাপী নস্কর,বিনন্দ সহ জনাকুড়ি সশস্ত্র লোকজন জোর পূর্বক এই খালে মাছ ধরে। সেই সময় রাধাগোবিন্দ মন্দির কমিটির লোকজন খালের কাছে যায় পরিস্থিতি দেখার জন্য। অভিযোগ সেই সময় মনোরঞ্জন মন্ডলের নেতৃত্ব তার দলবল ধারালো অস্ত্র নিয়ে মন্দির কমিটির লোকজনের উপর অতর্কিতে হামলা চালায়। হামলায় গুরুতর জখম হন মন্দির কমিটির সাতজন।তাদের কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বাসন্তী ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়।আহতদের মধ্যে বিমলেন্দু মন্ডল মন্ডলের আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে রাতেই ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন।পরে বিমলেন্দু মন্ডলের অবস্থা আরো আশাঙ্কাজনক হলে তাকে চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন ক্যানি মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকরা। ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় বাসন্তী থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুলিশ নিতাই নস্কর নামে একজন কে গ্রেফতার করেছে । এলাকায় রয়েছে চরম উত্তজনা।