রবিবার, ৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

উত্তপ্ত বাসন্তী,রাতের অন্ধকারে পুড়লো টোটো ও অটো

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, ক্যানিং -আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠলো বাসন্তী।গভীর রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়লো দুটি গাড়ী।আগুন পুড়ে ছাই হয়ে গেছে একটি টোটে ও একটি অটো গাড়ী।ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার গভীর রাতে বাসন্তী ব্লকের খেড়িয়া বিহারী মোড়ে।আর এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পাশাপাশি বাসন্তী ব্লকে শাসক দলের গোষ্ঠী কোন্দল ও প্রকাশ্যে চলে এসেছে।একে অপর কে দোষারোপ করছে।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে এলাকার দুই যুব তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী জহির সেখ ও জরুল পিয়াদা পেশায় টোটো ও অটো গাড়ীর চালক। অন্যান্য দিনের মতো রবিবার সারাদিন টোটো অটো চালিয়ে রাতে গাড়ী দুটি বাড়ীর একটি গ্যারেজে রেখে ঘুমিয়ে ছিলেন।রাত প্রায় একটা নাগাদ আচমকা ঘুম ভেঙে গেলে দেখতে পান দুটি গাড়ী এবং একটি ঘর দাউ দাউ করে আগুনে জ্বলছে।মুহূর্তে পরিবারে অন্যান্য সদস্য ও প্রতিবেশীরা দৌড় আসেন। আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। আগুন নেভাতে পারলেও ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে পারেনি। দুটি গাড়ী আগুনে পুড়ে ভষ্মীভূত হয়ে যায়।রাতের অন্ধকারে এই অগ্নিকান্ডের জন্য দায়ী এলাকার মূল তৃণমূল কর্মীরা। এমনটাই অভিযোগ যুব তৃণমূল কর্মী জহির সেখ ও জরুল পিয়াদার। ইতি মধ্যে বাসন্তী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ।

জহির সেখ ও জরুল পিয়াদা বলেন আমরা যুব তৃণমূল করি। সেই অপরাধে এলাকায় যুবতৃণমূল কংগ্রেস কে নির্মূল করার চক্রান্ত করে রাতের অন্ধকারে পুড়িয়ে মেরে দেওয়ার জন্য এই অগ্নি সংযোগ করেছে এলাকার মূল তৃণমূল দুষ্কৃতিরা।

যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছেন রাতের অন্ধকারে কিভাবে আগুন লেগেছে জানা নেই। তবে এমন ধরনের কাজ তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা করেনা।রাজনৈতিক রঙ লাগানোর উদ্দেশ্যে দোষারোপ করে এলাকায় উত্তেজনা তৈরী করতে চাইছে।