মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

 আড়াই বছর পর চিকিত্সায় বেনজির গাফিলতিতে সন্তান হারানোর বিচার মিলল অবশেষে

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১৫, ২০২০
news-image

আড়াই বছরের টানা লড়াই। চিকিত্সায় বেনজির গাফিলতিতে সন্তান হারানোর পর অবশেষে মিলল বিচার। অভিযুক্ত হাসপাতালকে জরিমানা করল স্বাস্থ্য কমিশন। চিকিত্সকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মেডিক্যাল কাউন্সিলকে বলা হয়েছে।

২০১৭ সালের অক্টোবরে হাওড়ার নারায়না সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে গলস্টোন অপারেশন হয় হাওড়ার কিশোরী ঋতজার। গলব্লাডার স্টোন আপারেশনের দুদিন পর গলা দিয়ে রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয় হাওড়ার কিশোরী ছাত্রী ঋতজা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মারা যায় ঋতজা। চিকিত্সায় চরম গাফিলতির অভিযোগ তুলে মেডিক্যাল কাউন্সিলের দ্বারস্থ হয় ঋতজার পরিবার। আড়াই বছরের লড়াই শেষে সুবিচার মিলল।

আড়াই বছর ২ তরফের অভিযোগ, বয়ান রেকর্ডের পর ওয়েষ্টবেঙ্গল ক্লিনিক্যাল এস্টাবলিস্টমেন্ট রেগুলেটরী কমিশনের রায় গেল হাসপাতালের বিপক্ষেই। হাওড়ার নারায়ণা হাসপাতালকে আটলক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিল স্বাস্থ্য কমিশন। একইসঙ্গে চিকিত্সকদের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মেডিক্যাল কাউন্সিলের কাছে কেস রেফার করা হয়েছে। সন্তান হারানোর ক্ষতে প্রলেপ পড়ার নয়। তবুও, অভিযুক্তরা শাস্তি পাওয়ায় খুশি ঋতজার বাবা।

 

রায়ের পর ঋতজার বাবা বলেন “দীর্ঘ লড়াইয়ের পর প্রমাণ করতে পারলাম আমার মেয়ের মৃত্যুর পেছনে হাসপাতালেরই দায় ছিল। এবার মেডিক্যাল কাউন্সিলের রিপোর্টের অপেক্ষায় আছি।”
নারায়না সুপার স্পেশালিটির মুখপাত্র বিবৃতি দিয়ে জানান, “ঋতজার মৃত্যু দুঃখজনক। কমিশনের রায় খতিয়ে দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”