সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সমালোচনার মুখেও নিজের অবস্থান বদলাচ্ছেন না দিলীপ ,বললেন, “দরকার হলে আবার আটকাব।”

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৮, ২০২০
news-image

 সভা চলায় অ্যাম্বুল্যান্সকে ঘুরিয়ে দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। সমালোচনার মুখেও নিজের অবস্থান বদলাচ্ছেন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি। বরং স্পষ্ট বলে দিলেন, দরকার হলে আবার আটকাব।

নদিয়ার কৃষ্ণনগরে জেলার প্রশাসনিক ভবনের সামনে সভা করছিলেন দিলীপ ঘোষ। জমায়েতও ভালোই হয়েছিল। ঠিক তখনই সেখান দিয়ে যাচ্ছিল একটি অ্যাম্বুল্যান্স। কিন্তু অ্যাম্বুল্যান্সকে পথ ছাড়েননি দিলীপবাবু। বরং নিদান দেন, এখান দিয়ে যেতে দেওয়া হবে না। লোকে রাস্তায় বসে আছে। বিরক্ত হবেন ওনারা। ঘুরিয়ে অন্য দিক দিয়ে চলে যান। দিলীপের এমন হুঙ্কারের পর অ্যাম্বুল্যান্স ঘুরিয়ে নিতে বাধ্য হন চালক। তখন রাজ্য সভাপতি বলেন,”সভা বানচাল করতে চক্রান্ত করে অ্যাম্বুল্যান্স পাঠিয়েছিল তৃণমূল।” ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পর সমালোচনার মুখে পড়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। সাংসদ হয়েও কীভাবে অ্যাম্বুল্যান্সের পথ আটকাচ্ছেন?

কিন্তু দিলীপ আছেন দিলীপেই। নিজের অবস্থান বদলাচ্ছেন না রাজ্য সভাপতি। স্পষ্ট বলে দিলেন, ”অ্যাম্বুল্যান্স খালি ছিল। ভিতরে রোগী ছিলেন না। সভা বানচাল করতে সেটা পাঠিয়েছিল তৃণমূল। আবার বলছি, ২৫ হাজার লোক ছিল সেখানে। অ্যাম্বুল্যান্স অন্য পথ দিয়ে যাওয়ার রাস্তা ছিল। দরকার হলে আবার করব।” তিনি বলেন,”আমরা জানি পশ্চিমবঙ্গে অ্যাম্বুল্যান্সে গাঁজা পাচার হয়।”

গোটা ঘটনায় তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন,”দিলীপ বাবু মানবিক হোন। আপনি অ্যাম্বুল্যান্স ঘুরিয়ে দিচ্ছেন। ছাত্রদের আন্দোলন  রং মেখে বলছে? এখনও মার খায়নি তো। যারা আন্দোলন করছে, তাদের ছোট করছে আপনার দলে। দিলীপ বাবু একটু  ভেবে দেখুন কী বলছেন!”