বৃহস্পতিবার, ৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিকনিক করতে গিয়ে ঘটে গেল মারাত্মক দুর্ঘটনা, মৃত্যু হল একই পরিবারের ৩ জনের

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৫, ২০২০
news-image

বছরের প্রথম রবিবার। পিকনিক করার জন্য আদর্শ দিন। সেই পিকনিক করতে গিয়েই ঘটে গেল মারাত্মক দুর্ঘটনা। মৃত্যু হল একই পরিবারের ৩ জনের। মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার উস্তি থানার বানেশ্বরপুরে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার পরিবারকে নিয়ে উস্তির বানেশ্বরপুরে পিকনিক করতে আসেন মগরাহাট থানার মামুদপুরের বাসিন্দা মফিজুল মোল্লা।  বানেশ্বরপুরের একটি স্কুলকে তারা বাছেন পিকনিক করার জায়গা হিসেবে। ওই স্কুলের ছাদের ওপর দিয়ে গিয়েছে হাইটেনশন বিদ্যুতের তার।

পিকনিক চলাকালীন কয়েকজন উঠে যায় ওই স্কুলের ছাদে। সেখানেই বিদ্যুতের তারে হাত দিয়ে দেয় মফিজুল মোল্লার ছেলে ও ভাইপো। মুহূর্তে থেমে যায় পিকনিকের হুল্লোড়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মফিজুলের ছেলে রেজাউল ও ভাইপোর গফফারের। তাদের বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হয়ে ছিটকে পড়েন মফিজুল।

এদিকে এলাকার লোকজন আহত মফিজুলকে ভর্তি করেন বানেশ্বরপুর গ্রামীন হাসপাতালে। সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় ডায়মন্ডহারবার জেলা হাসপাতালে।  সন্ধের দিকে মৃত্যু হয় মফিজুলের।

পিকনিক করতে এসে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় উঠে আসছে একাধিক প্রশ্ন। কীভাবে স্কুলের ছাদের উপর দিয়ে হাই টেনশনের তার গেল তা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন দানা বাঁধছে।  ইতিমধ্যেই ডায়মন্ডহারবার মহকুমা শাসক সুকান্ত সাহা বিদ্যুৎ দপ্তরের একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থলে পাঠান।  ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে তিনি জানান।