শুক্রবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

যোগীর রাজ্যের সোনভদ্রর এক স্কুলে ৮৫ জন বাচ্চার মধ্যে বিলিয়ে দেওয়া হল এক লিটার দুধ

News Sundarban.com :
নভেম্বর ২৯, ২০১৯
news-image

মিড ডে মিলে বাচ্চাদের রুটির সঙ্গে নুন খাওয়ানো হয়েছিল। মির্জাপুররে সেই ঘটনা সারা বিশ্বে সাড়া ফেলেছিল। আরও একবার মিড ডে মিলে দুর্নীতর ছবি প্রকাশ্যে চলে এল। এমনতিই মিড ডে মিলে দুর্নীতিতে উত্তর প্রদেশ সবার আগে। যোগীর রাজ্যের সোনভদ্রর এক স্কুলে ৮৫ জন বাচ্চার মধ্যে বিলিয়ে দেওয়া হল এক লিটার দুধ। এক গামলা জলে মাত্র এক লিটার দুধ মিশিয়ে বাচ্চাদের মধ্যে বিলিয়ে দেওয়া হয়। ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই চারিদিকে ছি ছি পড়ে গিয়েছে। বাচ্চাদের খাবার-দুধ নিয়েও এমন জঘন্য দুর্নীতি! আর দিনের পর দিন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এমনই চলে আসছে।

বাচ্চাদের জন্য যিনি রান্না করেন সেই রাঁধুনি জানিয়েছেন, শিক্ষা মিত্র তাঁকে এমনটা করতে বলেছিলেন। দুর্নীতির দায়ে দুজন শিক্ষা মিত্রকে বরখাস্ত করেছে প্রশাসন। সোনভদ্রের সলাইবনবা স্কুলে ৮৫ জন ছাত্রকে দুধের নাম করে জল খাওয়ানো হয়েছিল। কেউ বা কারা এক লিটার দুধে এক গামলা জল মিশিয়ে নেওয়ার ভিডিয়ো তুলে ছড়িয়ে দেয়। ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, একজন মহিলাকে প্রশ্ন করা হচ্ছে যে আপনি এক লিটার দুধে সাধারণত কতটা জল মেশান! তখনই সেই মহিলা এক গামলা দুধে এক লিটার দুধ মেশানোর কথা জানান।

সোনভদ্রের এক আধিকারিক আবার বলেছেন, ”ঘটনাটা সত্যি। এক লিটার দুধে এক গামলা জল মিশিয়ে বাচ্চাদের খাওয়ানো হয়েছে। দোষীরা দোষ স্বীকার করেছে। এবং এমন কাজের জন্য তাঁরা অনুতপ্ত। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরই প্রতিটি বাচ্চাকে এক গ্লাস করে দুধ খাওয়ানো হয়েছে।” সরকারি হিসাব বলছে গত তিন বছরে সারা দেশে মিড জে মিলে দুর্নীতির মোট ৫২টি ঘটনা সামনে এসেছে। যার মধ্যে ১৪টি উত্তর প্রদেশের। ১১টি বিহার, ৬টি বাংলা, মহারাষ্ট্রের ৫, রাজস্থানের ৪, অসম, দিল্লি, হরিয়ানার ২, ছত্তিসগড়, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, পাঞ্জাব, ত্রিপুরা ও উত্তরাখন্ডের একটি।