সোমবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নৌকা থেকে মৎস্যজীবীকে তুলে নিয়ে গেল সুন্দরবনের বাঘ

News Sundarban.com :
নভেম্বর ২৪, ২০১৯
news-image

দুই সঙ্গীর সামনে নৌকায় ঝাঁপ দিয়ে এক মৎস্যজীবীকে নৌকা থেকে তুলে নিয়ে জঙ্গলে চলে যায় সুন্দরবনের রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। শনিবার দুপুরে এমন ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের পিরখালি তিন নম্বর জঙ্গল লাগোয়া খালে।নিখোঁজ মৎস্যজীবীর নাম অনিল মন্ডল(৬৫)।উল্লেখ্য গোসাবা থানার বালি এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের আমলামেথি গ্রামের বাসিন্দা অনিল মন্ডল শুক্রবার গ্রামেরই অপর দুই মৎস্যজীবী কেনারাম মন্ডল ও হরেন বায়েনের সাথে নৌকায় চেপে রওনা দিয়েছিলেন সুন্দরবন জঙ্গলের নদীখাড়ীতে কাঁকড়া ধরার জন্য। শনিবার দুপুরের দিকে তারা সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের সজনেখালি রেঞ্জ এলাকাধীন পিরখালি তিন নম্বর জঙ্গল লাগোয়া খালে নৌকায় বসে কাঁকড়া ধরার জন্য দোন ফেলছিলেন নদীর জলে।পাশাপাশি একটা সময়ে তাদের নৌকাটি জলের ঢেউয়ে জঙ্গলের কাছাকাছি চলে যাওয়ায় হঠাৎই গর্জন করে একটি বাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে তাদের নৌকার উপর।শুরুতেই বাঘটি আচমকা অনিল বাবুর ঘাড়ে কামড় বসিয়ে তাকে নিয়ে পড়ে যায় নদীর জলে। বাঘটি নৌকার ওপর লাফিয়ে পড়ায় সেই ঝাঁকুনিতে নৌকা থেকে নদীর জলে পড়ে যায় কেনারাম মন্ডলও।সেই অবস্থায় বাঘটি দ্রুত ওই মৎস্যজীবীকে টানতে টানতে সুন্দরবনের গভীর ম্যানগ্রোভের জঙ্গলের মধ্যে চলে যায়। ভীত সন্ত্রস্ত সেই অবস্থায় নৌকায় থাকা হরেন বায়েন এরপর নদীর জল থেকে তোলেন কেনারামকে। চোখের সামনে সঙ্গীকে বাঘ নিয়ে চলে যাওয়ায় সাময়িক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন দুজনেই।পরে তারা মনের অদম্য শক্তি অর্জন করে দ্রুত এলাকা ছেড়ে নৌকা চালিয়ে চলে আসেন গ্রামের জেটিঘাটে। মুহূর্তের মধ্যে আমলামেথি গ্রামে ছড়িয়ে পড়ে ঘটনার খবর। বাড়িতে থাকা অনিল বাবুর স্ত্রী কল্পনা দেবী স্বামীর খবর জানতে পেরে কান্নায় ভেঙে পড়েন এবং অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি জ্ঞান হারান। এদিকে সেই খবর যায় সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের সজনেখালি রেঞ্জ অফিসে । সেখান থেকে বনকর্মীরা দ্রুততার সাথে নদী পথে চলে যান ঘটনাস্থলে। ঘন অন্ধকার নেমে আসায় হদিস মেলেনি নিখোঁজ মৎস্যজীবীর।
এ বিষয়ে সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের ক্ষেত্র অধিকর্তা ড: সুধীর চন্দ্র দাস বলেন ‘একজন মৎস্যজীবীকে নৌকা থেকে বাঘ তুলে নিয়ে গিয়েছে বলে জানতে পেরেছি। আমাদের লোকজন ওই এলাকায় তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।’