শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট ম্যাচ যার সূচনা হল প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হাত ধরে

News Sundarban.com :
নভেম্বর ২৩, ২০১৯
news-image

ম্যাচের ফয়সলা যাই হোক, ম্যান অব দ্য ম্যাচ ইতিমধ্যেই ঠিক হয়ে গেছে। ইডেনের দর্শকদের জিজ্ঞাসা করলেই বলছেন, কে আবার? দাদা। গোলাপি বলে দিনরাতের টেস্ট ম্যাচ। ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম। যার সূচনা হল প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হাতে ধরে। বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্টের তখতে বসার পর এই পদক্ষেপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

তবে, অত যুক্তির ধার ধারছেন না ইডেনে আসা দর্শকরা। গোলাপি আভায় মোড়া ক্রিকেটের ‘নন্দন কাননকে’ দেখে মুগ্ধ দর্শকরা। এমন ইতিহাসের সাক্ষী থাকতে পেরে ‘মহারাজকে’ ধন্যবাদ জানাচ্ছেন ক্রিকেট সমর্থকরা। তাঁদের কথায়, “না খেললেও, আজ মাঠের রাজা মহারাজাই।” এমন বাধা ভাঙা আবেগ শুধু ভারতীয় সমর্থকদের দেখা গেল না, সমান উচ্ছ্বাস চোখে পড়ল বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যেও। তাঁরা জানাচ্ছেন, বাংলাদেশ খারাপ খেলায় দুঃখ তো রয়েছেই। কিন্তু সৌরভের এমন আতিথেয়তায় মুগ্ধ। এর জন্য কুর্নিশ জানাচ্ছেন তাঁরা।

ক্রিকেট সমর্থক মিঠু দে বলেন, “আমি তো ভাবিনি টিকিট পাবো কিন্তু আজ বুঝলাম জীবনটা সার্থক হলো এই খেলা দেখে। আর দাদা তো লা জবাব। নবনীতা রায় বলেন, সব মিলিয়ে দারুণ আনন্দ হলো। দাদাই সেরা। অন্যদিকে বাংলাদেশের গুরুভাই বলছেন, “আমরা খারাপ খেলেছি। মন খারাপ  লাগছে কিন্তু  দাদাকে স্যালুট।

শুধুই দর্শক, তা কিন্তু নয় আমন্ত্রিত সেলেব্রিটিদের মুখেও একই রা। অলেম্পিক্স পদক জয়ী বক্সার মেরি কম কলাকাতায় এসে অভিভূত। বিশেষ করে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের আতিতেয়তায়। তিনি বলেন, “দাদা আমাকে সম্মান দিয়েছে আমি  অভিভূত। গোলাপি বলের আমেজ রয়েছে কিন্তু যে ভালোবাসা যে সম্পর্ক দিয়ে এই খেলা হলো তা চিরস্মরণীয়  হয়ে  থাকবে।”