মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বুলবুলে বিধ্বস্ত ফ্রেজারগঞ্জে অসহায় পরিবারদের হাতে ত্রাণ তুলে দিলেন উত্তরা

News Sundarban.com :
নভেম্বর ১৬, ২০১৯
news-image

বিশ্লেষণ মজুমদার

পাশেই বয়ে চলেছে সুন্দরবনে বঙ্গোপসাগর।তারই তীরবর্তীতে সুন্দরবনের ফ্রেজারগঞ্জ দ্বীপ অবস্থিত।গত শনিবার রাতেই ফ্রেজারগঞ্জ দ্বীপে বসবাসকারী একাধিক পরিবারের সাজানো সংসার ভেঙে তছনছ করে দিয়েছে বুলবুল নামক ভয়াল এক ঘুর্ণিঝড়।ঝড়ে বহু বাড়ীঘর ভেঙে পড়ায় এলাকার প্রায় সমস্ত অসহায় পরিবারের আশ্রয় হয় স্কুলঘর,ত্রাণ শিবির সহ খোলা আকাশের নীচে। এমন উদ্বেগজনক পরিস্থিতির মধ্যে প্রাণে বাঁচার তাগিদে ত্রাণের আশায় চাতকের মতো তাকিয়ে এলাকার বুলবুল আক্রান্ত বিধ্বস্ত পরিবার গুলি। সরকারী ত্রাণ পৌঁছালেও তা পর্যাপ্ত পরিমান নয় বলে বিস্তর অভিযোগ।

এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির কথা টিভির পর্দায়,সংবাদ পত্রের পাতা সহ সোস্যাল মিডিয়া বুলবুল তান্ডবের বাস্তব চিত্র দেখে মনপ্রাণ কেঁদে উঠেছিল উত্তর ২৪ পরগণা জেলার খড়দহের লিচুবাগান এলাকার “উত্তরা” নামক এক মহিলা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

ভয়াবহ পরিস্থিতির কথা পর্যালোচনা করে  উত্তরা’র সদস্যারা একবিন্দু দেরী না করে বৃহষ্পতিবার সকালে ১০০কেজি মুড়ি,১০০কেজি চিড়ে,৪০ কেজি গুড়,২০০ প্যাকেট গুঁড়ো দুধ,২৫০ প্যাকেট বিস্কুট নিয়ে সুদূর কলকাতা থেকে রওনা দেন সুন্দরবনের প্রত্যন্ত ফ্রেজারগঞ্জ দ্বীপ এলাকার বুলবুলে বিধ্বস্ত অসহায় মানুষজনদের কাছে।সেখানে গিয়ে অসহায় মানুষজনদের হাতে ত্রাণ তুলেদেন উত্তরার প্রতিনিধি সুতপা মুখার্জী,সুচরিতা দত্ত,জয়ীতা বর্মন,শর্মিষ্ঠা দাস সহ অন্যান্যরা।কলকাতার উত্তরা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ফ্রেজারগঞ্জের প্রত্যন্ত এলাকায় ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার সহযোগিতা করেন স্থানীয় দক্ষিণ শিবপুর নিউ গৌরাঙ্গ স্পোটিং  ক্লাবের একাধিক সদস্যরা।