মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শহরের দুই প্রান্তে তুবড়ি ফেটে দুজনের মৃত্যুর ঘটনা

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২৯, ২০১৯
news-image

একদিকে হরিদেবপুর, আরেকদিকে কসবা। শহরের দুই প্রান্তে তুবড়ি ফেটে দুজনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। একদিকে হরিদেবপুরে তুবড়ি বিস্ফোরণের জেরে প্রাণ হারিয়েছে ৫ বছরের ছোট্ট আদি দাস। অন্যদিকে, কসবাতেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে। তুবড়ি ফেটে মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের। মৃতের নাম দীপ কোলে।

জানা গিয়েছে, কালীপুজোর রাতে বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে বাজি পোড়াচ্ছিলেন দীপ কোলে। আচমকাই ফেটে যায় তুবড়িটি। তাতেই বিপত্তি বাধে। তুবড়ির খোলের টুকরো এসে দীপের গলায় ঢুকে যায়। গুরুতর জখম হন তিনি। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তবে এই ঘটনায় পরিবারের তরফে কোনও অভিযোগ করা হয়নি। উৎসবের রাতে মর্মান্তিক এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়। ঘরের ছেলেকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ গোটা পরিবার।

তবে হরিদেবপুরে তুবড়ি ফেটে ৫ বছরের শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বিক্রেতা বরুণ রায়কে গ্রেফতার করেছে  হরিদেবপুর থানার পুলিস।  জানা গিয়েছে, ধৃত বরুণ পেশায় মাছ বিক্রেতা। পাড়ায় মাছ বিক্রি করে সে। এবার কালীপুজো উপলক্ষে বাজি বিক্রি করেছিল সে। অভিযোগ, পুরনো তুবড়ি বিক্রি করেছিল সে। আর সেকারণেই তুবড়ি ফেটে বিস্ফোরণ ঘটে। প্রথমবার তুবড়িতে আগুন দেওয়ার পর সেটি ফাটেনি।

তখন বছর পাঁচেকের আদি দাস দ্বিতীয়বার আগুন দিতে যায়। সেইসময়ই বিকট শব্দে তুবড়িটি ফেটে যায়। তুবড়ির খোলের টুকরো তীব্র গতিতে এসে আদির কণ্ঠনালীতে গেঁথে যায়। শুরু হয় রক্তক্ষরণ।  তড়িঘড়ি বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, সেখানেই তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এই ঘটনায় আহত হয়েছে আরও এক শিশু। তুবড়ির খোলের টুকরো তার চোখের পাশে এসে লাগে। জখম হয় সে-ও।