শনিবার, ৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

স্ত্রীকে হত্যার পর পোলাও মাংস রান্না করে উৎসব করে কিশোর

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২০, ২০১৯
news-image

খালিদ আহমেদ 

শনিবার আদালতে রুবেল ও তার সহযোগী তরিকুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদানকালে এসব কথা জানান। শাহ-আলী থানার পরিদর্শক(তদন্ত) মেহেদী হাসান এই তথ্য জানিয়ে বলেন, ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার বেড়ানোর কথা বলে কিশোর গ্যাং লিডার রুবেল তার স্ত্রীকে বন্যাকে নিয়ে রাজধানীর বোটানিক্যাল গার্ডেনে নিয়ে যায়। সেখানে সুযোগ বুঝে সহযোগী তারিকুল ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে বন্যাকে খুন করে লাশ ডোবায় ডুবিয়ে রাখে। বন্যার বাবা জসিম উদ্দিনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বোটানিক্যাল গার্ডেনের ডোবা থেকে বন্যার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে এই হত্যাকাণ্ডে সন্দেহভাজন হিসেবে রুবেল ও তার সহযোগী তরিকুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে আদালত জবানবন্দি দিয়েছেন। তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বন্যার বাবা জসিম উদ্দিন জানান, এক সময় রূপনগর আবাসিক এলাকায় পাশাপাশি বাসায় থাকতেন তিনি ও রুবেলের পরিবার। একপর্যায়ে রুবেল ও বন্যার মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি হয়। পরে দুই পরিবারের সম্মতিতে তাদের মধ্যে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের কিছুদিন পরই দুই পরিবারের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ শুরু হয়। কিছুদিন আগে রুবেলের বাবা ক্ষিপ্ত হয়ে বন্যার পরিবারের সবাইকে হত্যা করারও হুমকি দেন। ওই সময় তিনি বলেন, ‘যা করা লাগে আমি করব; তুই ব্যবস্থা কর। এরপরই রুবেল তার স্ত্রী বন্যাকে হত্যার পরিকল্পনা করে।