রবিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কার্নিভ্যাল ঘিরে কড়া নিরাপত্তা

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২২, ২০১৮
news-image

উৎসবমুখর বাঙালির মনে বাজে বিষাদের সুর। মা ফিরে গেছেন কৈলাসে। আর এখনও উৎসবের রেশ কাটিয়ে উঠতে পারেনি শহরবাসী। পুজো কার্নিভ্যালের মাধ্যমে আরও একবার প্রতিমা দর্শনের সুযোগ পাবেন সাধারণ মানুষ। বিশ্বের দরবারে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসবকে তুলে ধরতে গত দু’বছর ধরে রেড রোডে পুজো কার্নিভ্যালের আয়োজন করছে রাজ্য সরকার। এবছরের কার্নিভ্যালে গত দু’বছরের তুলনায় বেশি সংখ্যায় পুজো মন্ডপ অংশ নিচ্ছে। এবছর ৭৫ টি পুজো মন্ডপ। এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে মানুষের মধ্যে উন্মাদনা রয়েছে তুঙ্গে। রেড রোডে কার্নিভ্যালের প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে, অন্যদিকে পুজো উদ্যোক্তাদেরও চূড়ান্ত ব্যস্ততার ছবি নজরে পড়েছে। সোমবার বিকেলে সল্টলেক স্টেডিয়ামে ইস্কনের সদস্যদের মহড়ায় ব্যস্ততা দেখা গেল। অনুষ্ঠানে প্রায় দু’হাজার আসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বেশি সংখ্যায় বিদেশিরা এই অনুষ্ঠান উপভোগ করতে আসবে বলে জানা যাচ্ছে। কার্নিভ্যাল উপলক্ষে লালবাজার কর্তারা বিশেষ পুলিশি ব্যবস্থা করেছে। লালবাজার সূত্রে জানা যাচ্ছে কার্নিভ্যালের জন্য দু’হাজার পুলিশ মোতায়েন থাকবে। নজরদারি চালানো হবে ছ’টি ওয়াচটাওয়ার থেকে। এছাড়া গোটা এলাকা উড়ে ফেলা হবে সিসিটিভিতে। বিশেষ নজরদারির জন্য রেড রোডে ওড়ানো হবে ড্রোন।মঞ্চকে ঘিরে বিশেষ নজরদারি চালানো হবে। মঞ্চের চারি পাশে সাদা পোশাকে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। মুল মঞ্চে ৯০ জন পুলিশকর্তা উপস্থিত থাকবে। এসটিএফের কর্তারাও নজরদারির জন্য বিশেষ দায়িত্বে থাকবেন। সোমবার থেকেই রেড রোডে পুলিশের কুকুর দিয়ে তল্লাশি চালানো হবে। অনুষ্ঠান চলাকালীন রেড রোডে রেফ, স্পেশাল ব্রাঞ্চ ও বম্ব স্কোয়াডের আধিকারিকরাও উপস্থিত থাকবেন।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই রেড রোডে যান চলাচল নিয়ন্ত্রন করা হবে। হসপিটাল রোড, ক্যাসুরিনা রোড ও আংশিকভাবে মেয়ো রোড অনুষ্ঠানের জন্য বন্ধ রাখা হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। যান চলাচলের জন্য জে এল নেহরু রোড খোলা থাকবে।