শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রাজ্যের আর্থিক সাহায্যে কাটোয়ার মানুষ মিটেছে পানীয় জলের কষ্ট

News Sundarban.com :
আগস্ট ১৬, ২০১৮
news-image

আর্সেনিকমুক্ত হওয়ায় নিশ্চিন্তে জল পান করছেন কাটোয়ার মানুষ। মিটেছে পানীয় জলের কষ্ট। পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ায় চালু হয়েছে আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জলের প্রকল্প। কাটোয়া এলাকায় কুড়িটি ওয়ার্ডের প্রায় একাশি হাজার বাসিন্দাকে জল সরবরাহ করে পুরসভা। প্রায় ছ’শ সাইত্রিশটি ট্যাপ কলের মাধ্যমে পানীয় জল সরবরাহ করা হয়। চারটি ওভারহেড ট্যাঙ্ক ও তিনটি ভূগর্ভস্থ ট্যাঙ্কে জল মজুত করা থাকে। কিন্তু বাসিন্দারা জলকষ্টে ভুগছিলেন গত কয়েকবছর ধরে। তাই তেষ্টা মেটাতে এবার পুরসভার উদ্যোগে নতুন জল প্রকল্প চালু হয়েছে।রাজ্যের আর্থিক সাহায্যে পুরসভা মোট আটাশ কোটি টাকা খরচে ভাগীরথী থেকে জল তুলে সরবরাহ করছে। আধুনিক এই জলপ্রকল্প থেকে ভাগীরথীর জল বিশেষ পদ্ধতিতে সম্পূর্ণ আর্সেনিকমুক্ত করা হচ্ছে।
এই প্রকল্পে সম্পূর্ণ আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জল পাবেন বাসিন্দারা। বিশেষ পদ্ধতিতে ভাগীরথীর জল পাইপে করে তোলা হবে। এরপর উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে সম্পূর্ণ আর্সেনিক মুক্ত করা হবে। আগামী কয়েকবছরের কথা মাথা রেখেই এই জলপ্রকল্পের শুরু। পুরসভার দাবি,
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে নতুন করে সাড়ে চার কিলোমিটার জলের পাইপ বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। উপকার পাচ্ছেন ১১,১২,১৪,১৯,২০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা।পুরসভার ২৮ কোটি টাকা খরচে জলপ্রকল্প, দিনে ৪ দফায় ১ কোটি ২০ লক্ষ লিটার জল সরবরাহ করে পুরসভা, ২০২৫ সালে কাটোয়ার সম্ভাব্য জনসংখ্যা হতে চলেছে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার ৷ এই জলপ্রকল্পে আগামী ৭ বছর কোনও জলকষ্ট দেখা দেবে না ৷