মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

NRC নিয়ে বিজেপি-কে তোপ দাগলেন, মুখ্যমন্ত্রী

News Sundarban.com :
আগস্ট ১৪, ২০১৮
news-image

ফের NRC নিয়ে বিজেপি-কে তোপ দাগলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মঙ্গলবার নবান্নে অসম বাঙালি ইউনাইটেড ফোরামের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এরপরই এনআরসি নিয়ে বিজেপি-কে তীব্র আক্রমণ করেন মমতা৷ বলেন, ‘১৯৬৫ সালে আসা বাঙালিদেরও নাম রাখা হয়েছে এনআরসি-তে৷ তাঁরা কেন বাদ যাবেন? ভোটের জন্য রাজনৈতিক খেলা শুরু করেছে বিজেপি৷ জোর করে অনুপ্রবেশকারী বলা হচ্ছে৷ কেন তৃণমূল প্রতিনিধিদের আটকানো হল? কীসের ভয় বিজেপির?’ একের পর এক নথি তুলে ধরে মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, জাতীয় নাগরিক পঞ্জীর খসড়ার নামে বাদ দেওয়া হয়েছে বেশির ভাগ বাঙালিকে৷ তাঁর কথায়, ‘২৫ লক্ষ হিন্দুর নাম বাদ গিয়েছে৷ ১৩ লক্ষ বাঙালি মুসলিমের নাম রয়েছে তালিকায়৷ গায়ের জোরে শরণার্থী তৈরি করছে বিজেপি৷ বাঙালি-বিরোধী কাজের তীব্র বিরোধিতা করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ডিটেনশন ক্যাম্পগুলিতে প্রচুর বাঙালিকে আটকে রাখা হয়েছে৷ ওঁরা কি অনুপ্রবেশকারী? পরিচয়পত্র থাকা সত্ত্বেও কেন এনআরসি-তে তাদের নাম উঠবে? কোনও রকম বাঙালি বিরোধী কাজ বরদাস্ত করব না৷ এই ভাবে ভারতীয় নাগরিকদেরও অপমান করা হচ্ছে৷ এ রাজ্যেও বিহারের বাসিন্দা রয়েছে৷ সব রাজ্যেই অন্য রাজ্যের মানুষ থাকেন৷ তাঁদের দেশ ভারত৷ ভারতীয় নাগরিক তাঁরা৷ দেশে এ ভাবে ভাগাভাগি করে কী লাভ! বাংলায় এনআরসি কোনওমতেই নয়৷ বাংলায় এসে বাংলা বিরোধী কাজ করবেন? যা ইচ্ছে চাইলেই তো করা যাবে না৷ বাংলাভাষী হওয়াটা কি অন্যায়? বাঙালি হলে কেন অসমে যাওয়া যাবে না? ভোট হলেই বিজেপি হারবে৷’

দেশজুড়ে গণপিটুনির ঘটনাতেও ক্ষোভ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গণপিটুনির নামে যা হচ্ছে সেটা কী? সেটা কি উগ্রপন্থার থেকে কিছু কম? এনআরসি নিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখ বন্ধ করার চেষ্টা চলছে বলেও অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ বলেন, ‘বিজেপি বলছে, কোনও ভারতীয়ের নাম নেই৷ আমার কাছে তো মা-বাবার জন্ম নথি নেই৷ পুরনো লোকেদের অনেকেরই জন্ম নথি নেই৷’