বৃহস্পতিবার, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১৩ দিন পর মেডিকেল কলেজ অনশন অব্যাহত

News Sundarban.com :
জুলাই ২২, ২০১৮
news-image

১৩ দিনে পড়ল মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়াদের অনশন। রবিবার অনশনরত ছাত্রদের সঙ্গে দেখা করবেন প্রিন্সিপাল৷ অবশ্য, বার বারই ছাত্রদের অনুরোধ করা হচ্ছে চিকিৎসা নিতে৷ অনশনের প্রায় ২৬২ ঘন্টায় একের পর এক অনশনকারীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে৷ প্রথমে অনিকেত চট্টোপাধ্যায়, সুমিত ধাড়া ও তারপরে শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে এমবিবিএস চতুর্থ বর্ষের পড়ুয়া দেবাশিস বর্মণের।
উল্লেখ, গত ৫ জুলাই থেকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়াদের একাংশ আমরণ অনশনে বসেছেন ৷ মোট ৪ দফা দাবি নিয়ে তাঁরা অনশনে বসেছেন পড়ুয়ারা ৷ কলেজ কাউন্সিলের সদস্যরা প্রতিটি হাসপাতালে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পরিস্থিতি সরে জমিনে খতিয়ে দেখছেন ৷ খতিয়ে দেখা হচ্ছে কতজন পড়ুয়া থাকেন তাঁদের থাকার ব্যবস্থা, তাঁদের বসবাসের পরিকাঠামো ৷ বাইরের কতজন সেখানে থাকেন ৷ কতগুলি ঘর অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে ? জল নিকাশির ব্যবস্থা ঠিকঠাক আছে কিনা ? সন্দেহ করা হচ্ছে অনশনরত অবস্থায় বেশ কিছু পড়ুয়া ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়েছে বলে ৷ যদি তাই হয়ে থাকে তাঁদের জন্য সম্পূর্ণ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে ৷
অবশেষে কাটতে চলেছে মেডিক্যাল কলেজের হোস্টল নিয়ে ছাত্র আন্দোলনের জট। কী করে নতুন হোস্টেল নতুন হোস্টেলে পুরনো ছাত্রদের ঠাঁই দিতে রাজি হয়েছেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ উচ্ছ্বল ভদ্র। শনিবার রাতে বেরিয়েছে রফাসূত্র। তাতে নতুন হস্টেলের ৩টি তল বরাদ্দ হয়েছে পুরনো ছাত্রদের জন্য। যদিও এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে স্বাস্থ্যশিক্ষা বিভাগের সহমতি প্রয়োজন বলে জানা গিয়েছে। এর পর অধ্যক্ষের অনুরোধে ২ জন অনশনরত ছাত্র চিকিত্সা নিতে রাজি হয়েছেন।
মেডিক্যাল কলেজ কতৃপক্ষের তরফে জানা গিয়েছে, পুরনো হস্টেলগুলিতে মোট ৯৪টি আসন খালি রয়েছে। পুরনো ছাত্রদের মধ্যে হস্টেলের আবেদনকারীর সংখ্যা প্রায় ২০০। বাকি ছাত্রদের কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে নতুন হস্টেলে থাকতে দেওয়া হবে শনিবার লিখিত ভাবে জানিয়েছেন অধ্যক্ষ। এর পরই ছাত্রদের অনশন তুলে নিতে অনুরোধ করেন তিনি। এর পর অধ্যক্ষের অনুরোধে ২ ছাত্র চিকিত্সা নিতে সম্মত হন। সূত্রের খবর, রফাসূত্র তৈরি করে তা স্বাস্থ্যশিক্ষা বিভাগকে পাঠিয়েছেন অধ্যক্ষ। সেখান থেকে অনুমোদন মেলার পরই কার্যকর হবে সিদ্ধান্ত। আন্দোলনকারীদের তরফে খবর, অধ্যক্ষের এই রফাসূত্র মেনে নিতে রাজি হয়েছেন তাঁরা। ওদিকে রবিবার বিকেলে গণ কনভেনশনের ডাক দিয়েছেন ছাত্ররা।