সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা

News Sundarban.com :
জুন ১৫, ২০১৮
news-image

জনসম্পর্ক অভিযানে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি গিয়েছিলেন । সাক্ষাত সেরে বেরিয়ে রাহুল দাবি করেন নোট বাতিলের সময় কষ্ট পাওয়ার অভিযোগ ছাড়া বিজেপি সরকার নিয়ে সৌমিত্রর আর কোনও অভিযোগ নেই। আগামী লোকসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে কেন্দ্রীয় সরকারের চার বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে গত ১ মে থেকে বিজেপি জনসম্পর্ক অভিযান কর্মসূচি নিয়েছে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে দেখা করে কেন্দ্রীয় সরকারের কাজের খতিয়ান তুলে দিচ্ছেন বিজেপি নেতারা।গত মে মাস থেকেই এই সম্পর্ক অভিযান চালু করেছে বিজেপি। বিজেপি নেতারা অবশ্য একে ভোটের কথা মাথায় রেখে নেওয়া উদ্যোগ বলে মানেন না। তাঁদের দাবি দলের আদর্শ সবার কাছে পৌঁছে দেওয়াই লক্ষ্য। এই অভিযানে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে তাঁরা ওই পুস্তিকা তুলে দিচ্ছেন, সরকারের কাজের বিষয়ে পরামর্শ চাইছেন। এর আগে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকে দেখা গিয়েছে সংবিধান বিশেষজ্ঞ সুভাষ কশ্যপ বা প্রাক্তন সেনাপ্রধান দলবীর সিং-এর হাতে পুস্তিকা তুলে দিতে।
এদিন সকালে চলচ্চিত্র ও মঞ্চের বিশিষ্ট অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের গলফ গ্রিনের বাড়িতে যান বিজেপির জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন মোদী সরকারের চার বছর পুর্তি উপলক্ষ্যে কাজের খতিয়ান সংক্রান্ত রঙিন পুস্তিকা। সৌমিত্রের হাতে সেই পুস্তিকা তুলে দেন রাহুল। খুব বেশিক্ষণ অবশ্য ছিলেন না। পাঁচ মিনিট বাদেই সৌমিত্রের বাড়ি থেকে তিনি বেরিয়ে আসেন।সাংবাদিকদের রাহুল জানিয়েছেন, মোদী সরকারে ৪ বছরের কাজের খতিয়ানের পুস্তিকাটি পড়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় মতামত দেবেন বলেছেন। এছাড়া মোদীর একটি মাত্র কাজে সৌমিত্রকে খুবই ভুগতে হয়েছিল, তা হল নোট বাতিল। রাহুলের দাবি, ‘আচমকা হয়েছিল তো, তাই কষ্ট পেয়েছিলেন। তবে মোদীজীর বাকি কাজের প্রশংসা করেছেন।’ বিজেপি নেতা আরও জানান, তিনি সৌমিত্রের কাছে কেন্দ্রীয় সরকার আর কী কী কাজ করতে পারে, সে বিষয়ে পরামর্শ চেয়েছেন। তবে অভিনেতা এখন পারিবারিক কাজে ব্যস্ত থাকায় পরে ভাবনাচিন্তা করে জানাবেন বলে রাহুলকে জানিয়েছেন।