বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নিজেদের বিয়ে রুখে চলে আসা ৪ ছাত্রীকে সংবর্ধনা দিল মথারপুরের হাইস্কুল

News Sundarban.com :
মার্চ ৯, ২০১৮
news-image

নবম, দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়া রফিজা পাইক, মনুয়ারা সেখ, রুপজান ঘরামী ও অর্পিতা অধিকারী। গত এক বছরের মধ্যে এই ছাত্রীদের বিয়ে ঠিক হয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও পুলিস আধিকারিকের সহযোগিতায় বিয়ে ভেঙেছে এই ৪ কন্যা। এই বিয়ে ভাঙার জন্য পরিবার ও প্রতিবশীদের কুকথাও শুনতে হয়েছে এদের। কিন্তু এরা প্রতিজ্ঞা করেছিল, ১৮ বছরের আগে কোনমতে বিয়ে নয়। বিয়ে ভেঙে সবাই আবার নিয়মিত স্কুলেও আসছে। নিজেদের বিয়ে রুখে চলে আসা ৪ ছাত্রীকে সংবর্ধনা দিল মথারপুরের কৃষ্ণচন্দ্রপুর হাইস্কুল। নারী দিবসের দিন বৃহস্পতিবার স্কুলের অডিটোরিয়ামে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন মথুরাপুরের ওসি শিবেন্দু ঘোষ, স্কুলের প্রাক্তণ শিক্ষিকা মায়া মণ্ডল, এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রধান সঙ্গীতা গায়েন, চাইল্ড লাইনের প্রতিনিধি। প্রত্যেককে উপহার হিসেবে মানপত্র, উত্তরীয়, বই, ফুলের স্তবক ও মিষ্টি তুলে দেওয়া হয়। দেখানো হয় বাল্য বিবাহের উপর একটি তথ্যচিত্র। প্রধান শিক্ষক চন্দন মাইতি বলেন,‘‌ গত এক বছর ধরে আমরা ৪ ছাত্রীর বিয়ে রুখতে পেরেছি। সেই মেয়েদের নিয়ে আমরা তৈরী করেছি স্বয়ংসিদ্ধা দল। নিজেদের এলাকায় প্রচার চালাচ্ছে এই দল।