সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তৃণমূলের রাজনৈতিক কর্মী সম্মেলনে জাতীয় সঙ্গীত ভুল গাওয়া হল

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮
news-image

সুভাষ চন্দ্র দাশ

আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে তৃণমূলের সমস্ত রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের কে একত্রিত করে রাজনৈতিক সম্মেলন করলো ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস। রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার ক্যানিংয়ের নিকারীঘাটা পঞ্চায়েতের সাতমূখী বাজারের সবুজ সংঘের মাঠে তৃণমূলের রাজনৈতিক কর্মী সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগণা তৃণমূল জেলা সভাপতি তথা কলকাতার মেয়র ও দমকল, পরিবেশ ও আবাসন দফতরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী শোভন চ্যাটার্জী,সাংসদ প্রতিমা মন্ডল,বিধায়ক শ্যামল মন্ডল,দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার জেলা সহকারী সভাধিপতি শৈবাল লাহিড়ী,ক্যানিং ১নং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পরেশ রাম দাস অন্যান্য নেতৃত্ব। ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের রাজনৈতিক কর্মী সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী শোভন চ্যাটার্জী বলেন “শুধু ক্যানিং নয় জেলার কোথাও বিরোধীরা আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রার্থী দিতে পারবেনা এবং অস্তিত্ব থাকবেনা। রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার ক্যানিংয়ের সাতমূখী বাজারে রাজনৈতিক কর্মী সম্মলনে তিনি দলীয় কর্মীদের কে সাবধান করে দিয়ে বলেন “অাবেগে না ভেসে  বিজেপি,কংগ্রেস,সিপিএম কি করলো সেদিকে নজর না দিয়ে অামাদের কে প্রতিটি পঞ্চায়েত এলাকায় গিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে সুবিধা অসুবিধার কথা জেনে সমস্যা সমাধান করতে হবে,সর্বদাই সাধারণ মানুষের পাশে থাকার অাহ্বান জানান।গোষ্ঠীদ্বন্দের কথা এড়িয়ে গিয়ে বলেন অনক সময় হাঁড়ী কলসী এক জায়গায় থাকলে ঠোকাঠুকি হয় । সে নিয়ে যেন দলের মধ্যে কোন দ্বন্দ না হয়। পঞ্চায়েত নির্বাচনে মহিলাদের জন্য ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষিত হওয়ায় উন্নয়ন অারো তরান্বিত হবে। তিনি অারও বলেন অামাদের মধ্যে কোন বিভেদ থাকবেনা,সাথে এও বলেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সাম্প্রদায়িক বিভেদ তৈরী করে একটা রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরীর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেটা আমরা হতে দেব না। আমাদের একটিই পরিচয় অামরা “মা-মাটি-মানুষ” এর তৃণমুল কংগ্রেস কর্মী”।এদিন সম্মেলনের শেষ হয় জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে। জাতীয় সঙ্গীত মন্ত্রী সহ সকলেই ভুল গাইলেন। সেই জাতীয় সঙ্গীত ভুল গাওয়ার জন্য বেশ কিছু দলীয় কর্মী সমর্থক চরম ভাবে ক্ষুব্দ্ধ। যদিও তৃণমূলের নেতা কর্মীরা এবিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজী হননি।