বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পেশ করলেন সাধারণ, রেল বাজেট

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৮
news-image

সাধারণ বাজেট্ঃ 

কেন্দ্রীয় বাজেটে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানান, এ বছর বাজেটে বাড়তে চলেছে এলসিডি-এলইডি টিভি সেট এবং মোবাইলের দাম। যার জেরে মধ্যবিত্তের সুখসাচ্ছন্দে পড়তে পারে টান, দেশীয় উৎপাদনে জোর দিতে বিদেশ থেকে আমদানি হওয়া এলসিডি ও এলইডি প্যানেলের ওপর ধার্য হওয়া কাস্টমস ডিউটি বা অন্তঃশুল্ক দ্বিগুণ করা হবে। এই শুল্কের হার বর্তমানে সাড়ে সাত শতাংশ থেকে বাড়িয়ে একেবারে ১৫ শতাংশ করা হবে। একইভাবে, মোবাইল ফোনের ওপর ধার্য হওয়া বহিঃশুল্ক ১৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২০ শতাংশ করার প্রস্তাব দেন তিনি। পাশাপাশি মোবাইল ফোনের কয়েকটি যন্ত্রাংশের অন্তঃশুল্কের হার বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হবে।
অরুণ জেটলি জানান, এব্ছরের সাধারণ বাজেটে ফি-বছর বাজেটে কাস্টমস ডিউটিতে ছাড় দেওয়ার প্রথা থেকে সরে আসছেন তিনি। কারণ, বর্তমানে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, ইলেক্ট্রনিক্স, গাড়ির যন্ত্রাংশ এবং ফুটওয়্যারের দেশে ভাল সম্ভাবনা রয়েছে। তাঁর দাবি, এর ফলে এসব ক্ষেত্রে দেশে প্রচুর কর্মসংস্থান হবে।
প্রবীন নাগরিকের বাজেট্ঃ
অরুণ জেটলির সাধারণ , রেল বাজেটের পাশাপাশি প্রবীণ নাগরিকদের জন্য বাজেটে ঘোষণা করলেন। তাঁদের জন্য ব্যাঙ্কে সুদ থেকে প্রাপ্ত আয়ে ছাড়ের সীমা এবার ৫ গুণ বেড়ে বছরে ৫০ হাজার টাকা হল। পাশাপাশি আয়কর আইনের ৮০ ডি ধারায় তাঁদের স্বাস্থ্যবিমা প্রিমিয়াম ও চিকিত্সা ব্যয়ে ছাড়ের সীমাও ৩০ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। বাজেট তিনি বলেছেন, সব প্রবীণ নাগরিক যে কোনও স্বাস্থ্যবিমা ও অথবা সাধারণ চিকিত্সার খরচের ক্ষেত্রে বছরে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ছাড় দাবি করতে পারবেন। পাশাপাশি ৮০ ডিডিবি ধারায় নির্দিষ্ট কয়েকটি রোগের চিকিত্সার খরচে ছাড়ের সীমাও বাড়িয়ে ১ লক্ষ টাকা করা হয়েছে। তিনি বলেন, কর ছাড়ের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বয়ো বন্দনা যোজনা ২০২০-র মার্চ পর্যন্ত বহাল থাকছে। এতে ৮ শতাংশ সুনিশ্চিত রিটার্ন দেয় এলআইসি। এই স্কিমে সিনিয়র নাগরিকদের ক্ষেত্রে বছরে বিনিয়োগর চলতি সীমা সাড়ে সাত লক্ষ থেকে প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে ১৫ লক্ষ টাকা হচ্ছে।
বাজেটে শুল্ক হ্রাসের ঘোষণায় দাম কমতে চলেছে পেট্রোল ও ডিজেলের দামে। লিটার পিছু ২ টাকা পর্যন্ত দাম কমতে পারে পেট্রোল ও ডিজেলের।
রেল বাজেট্ঃ
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আজ সাধারণ বাজেটের সঙ্গে রেল বাজেটও পেশ করলেন।তিনি রেলওয়েতে ১.৪৮ লক্ষ কোটি টাকা মূলধনী ব্যয়বরাদ্দের ঘোষণা করেছেন। জাতীয় পরিবহণ ক্ষেত্রের অগ্রাধিকারের কথা মাথায় রেখে অধিকাংশ অর্থই সক্ষমতার সম্প্রসারণে ব্যয় করা হবে।১৮ হাজার কিমি রেললাইন দ্বিগুণ করার প্রস্তাবও দিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে পরিবহণ সক্ষমতার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা এড়াতে দেশের সমস্ত রেললাইন ব্রড গেজ করার কাজ চলছে বলেও জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। জেটলি আরও বলেছেন, আগামী বছর ৩৬ হাজার রেল পথ সংস্কারের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য হয়েছে। আগামী দু বছরের মধ্যে ব্রডগেজ রুটে থাকা সমস্ত অরক্ষিত ক্রসিংয়ের অবলুপ্তি ঘটানো হবে। জেটলি জানিয়েছেন, বিশ্বমানের ট্রেন তৈরির কাজ চলছে। আসছে ডেডিকেটেড করিডোরও। অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বৈদ্যুতিকরণের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। রোজগার বাড়াতে রেল অন্যান্য সম্ভাবনা খতিয়ে দেখবে। সমস্ত ট্রেনে দেওয়া হবে ওয়াই-ফাই, সিসিটিভি। যে সব স্টেশনে ২৫,০০০-র বেশি যাত্রী যাতায়াত করেন, সেগুলিতে বসবে এসক্যালেটর। জেটলি জানিয়েছেন, ৬০০ টি স্টেশনের আধুনিকীকরণ করা হবে। সিগন্যালের আধুনিকীকরণ,ফগ সেফটি ডিভাইস, যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য ও সুরক্ষা বৃদ্ধির মতো ক্ষেত্রই রেলের অগ্রাধিকার বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী । মুম্বই শহরতলির রেল পরিষেবা সম্প্রসারণের ঘোষণাও করেছেন। এজন্য ১১,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণাও করেছেন তিনি। এছাড়াও শহরের রেল নেটওয়ার্কের জন্য ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের কথাও বলেছেন তিনি। কর্নাটকের বেঙ্গালুরুর স্থানীয় রেল নেটওয়ার্কের জন্য ১৭,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণাও করা হয়েছে এবারের বাজেটে।