শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ড্রাগ কারবারী ধরা পড়ে গেল আয়কর দিতে গিয়ে

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৩০, ২০১৮
news-image

সামান্য নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করে। আর সেই আয়ের শ্রমিক কিনা আয় কর রিটার্নে বার্ষিক আয় দেখিয়েছে ৪০ লাখ টাকা। এই অসমতার কোনও যুক্তিসঙ্গত জবাব দিতে পারেনি, কর্নাটকের রাচাপ্পা রঙ্গা নামে ঐ ব্যাক্তি ধরা পড়ল পুলিশের কাছে। ফাঁস হয়ে গেল তার নিষিদ্ধ ড্রাগের রমরমা কারবার।৩৪ বছরের রঙ্গা থাকে কনকাপুরা রোডে। তার কাছ থেকে ২৬ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে পুলিশ। পাওয়া গিয়েছে নগদ ৫ লাখ টাকাও। তার এক সঙ্গী শ্রীনিবাস গ্রেফতার হয়েছে, চম্পট দিয়েছে আর এক সঙ্গী, গাঁজা সরবরাহের দায়িত্বে থাকা সাশু। রঙ্গা আয়কর রিটার্ন ফাইল করে, তাতে সে দেখায় ২০১৭-১৮ সালে তার বার্ষিক রোজগার হয়েছে ৪০ লাখ টাকা। কিন্তু উপার্জনের উৎস সম্পর্কে মুখ খোলেনি সে। আয়কর অফিসাররা তাকে ডেকে পাঠান, পুলিশকে নির্দেশ দেন নজর রাখতে। সূত্রের খবর, ২০১৩-য় ড্রাগ কারবারে ঢোকার আগে রঙ্গা বেঙ্গালুরুতে নির্মাণ কর্মীরই কাজ করত। যুবকদের গাঁজা বিক্রির কাজে লাগাত সে, রোজগার করত কোটি কোটি টাকা। কনকপুরা রোডে তার যে বিশাল ভিলা, তার মাসিক ভাড়া ৪০,০০০ টাকা! তার বিলাসবহুল গাড়ি রয়েছে, গ্রামের দিকেও কিনেছে প্রচুর সম্পত্তি।