মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

নির্ধারিত সময়েই রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট অনুষ্ঠিত হবে-পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়নমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ২৭, ২০১৮
news-image

গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য নির্ধারিত সময় মে-জুন মাস৷ শনিবার রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়নমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানালেন নির্ধারিত সময়েই রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট অনুষ্ঠিত হবে৷ কারণ, মে মাসের মাঝামাঝি গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা৷ তাই ওই সময়েই ভোট হবে বলে এদিন জানিয়েছেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী৷ তবে ঠিক কবে পঞ্চায়েত নির্বাচন হবে, তার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবুজ সঙ্কেত পাওয়ার না পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলেও জানান তিনি৷ সূত্রের খবর, আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনকে পাখির চোখ করে প্রশাসনিক প্রস্তুতি প্রায় শেষ করে ফেলেছে রাজ্য সরকার৷ নির্বাচনের আগে রাজ্য সরকারি দফতরগুলিতে বরাদ্দ অর্থ খরচ করার বিষয়েও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ জেলায় জেলায় চলছে ভোট কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ৷ নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগে নবান্ন থেকে পঞ্চায়েত দফতরের কাছে পঞ্চায়েত ভোট সম্পর্কে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়৷ অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে ভোটের দিনক্ষণ ঠিক করা নিয়েও জানতে চাওয়া হয়৷ জবাবে পঞ্চায়েত দফতরের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, ২০১৩ সালে পঞ্চায়েত ভোটের পর যেদিন প্রথম বোর্ড গঠন হয়েছিল, ২০১৮ সালে সেই দিনের আগে ভোট করতে হবে৷ তাতে দেখা যায়, ২০১৮ সালে জুন-জুলাই মাসের আগে ভোট করা যাবে না৷ মূলত, দফতরের এই সুপারিশ অনুযায়ী মে-জুন নাগাদ ভোট করাতে চলেছে রাজ্য৷ তবে, এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচন রাজ্যে শাসকদলকে সামনে ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ কারণ, গ্রামে-গঞ্জে বিজেপির উত্থান তৃণমূলকে ভাবিয়ে তুলেছে৷ পঞ্চায়েত ভোটের রেশ কাটতে না কাটতেই ঘারের ওপর নিঃশ্বাস ফেলছে ২০১৯ সালের লোকসভা ভোট ফলে, নির্বাচনে ঝাঁপিয়ে পড়ার আগে বুঝে-সুঝে পা বাড়াতে চাইছে রাজ্যের শাসকদল৷