শুক্রবার, ১৭ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘সরকারি কর্মীদের মহার্ঘভাতা অসংবিধানিক’

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৮, ২০১৮
news-image

বন্ধ হতে চলেছে সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা, সরকারি কর্মীদের ভাতা দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা নেই৷ দেশে যখন বেকারদের জন্য ভাতা দেওয়া হচ্ছে না, তখন কেন মহার্ঘ ভাতা দেওয়া হবে? প্রশ্ন তুলে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করলেন আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকার৷ মামলাকারীর যুক্তি, সংবিধানে মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার কথা কোথাও স্পষ্ট করে উল্লেখ নেই। ফলে, তুলে দেওয়া হোক এই ব্যবস্থা৷
সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করার পর আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকার বলেন, ‘‘ভারতীয় সংবিধানে কোথাও ডিএ দেওয়ার কথা বলা নেই৷ ৫৯ ধারায় এই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই বলা হয়নি৷ ফলে, সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়ার বিষয়টি ভেবে দেখা উচিত৷’’
আদালত সূত্রে খবর, সরকারি কর্মীদের ডিএ পাওয়ার অধিকার তুলে দেওয়ার আর্জি জানিয়ে সোমবার দায়ের হয় জনস্বার্থ মামলা৷ ডিএ দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্র সরকারকে কাছে যুক্তি চাওয়ার আর্জি জানিয়ে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়৷ একইসঙ্গে জনস্বার্থ মামলায় গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি খারিজেরও আবেদন করা হয়৷ বকেয়া মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে বেশ কয়েক বছর ধরে আন্দোলন করছেন সরকারি কর্মচারী সংগঠনের সদস্যরা৷ বকেয়া টাকার দাবিতে আদালতেও যেতে হয় সরকারি কর্মীদের৷ যদিও, সরকারি কর্মীদের দায়ের করা মামলা এখনও হাইকোর্টে বিচারাধীন৷ আগামীকাল মঙ্গলবার হাইকোর্টে মহার্ঘ ভাতা মামলার শুনানিও রয়েছে৷ ওই মালার সঙ্গে ডিএ বিরোধিতা করে দায়ের হওয়া মামলা জুড়ে যেতে পারে বলেও আদালত সূত্রে খবর৷ তবে, এমনটা ঘটলে সরকারি কর্মীদের ডিএ পাওয়ার স্বপ্ন হিমঘরে চলে যাবে বলেই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ৷ এক্ষেত্রে মামলার জটিলতা বৃদ্ধির আশঙ্কাও রয়েছে৷ মহার্ঘ ভাতা নিয়ে মামলা চললেও মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুসারে চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে বর্ধিত ১৫ শতাংশ হারে ডিএ পাওয়ার কথা রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের৷