বৃহস্পতিবার, ৮ই জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ঐতিহ্যবাহী কংগ্রেসের নতুন সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন রাহুল

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ১২, ২০১৭
news-image

ভারতের ঐতিহ্যবাহী কংগ্রেসের নতুন সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন রাহুল গান্ধী। ফলে ১৯ বছর পর নতুন সভাপতি পেল কংগ্রেস। সোমবার ছিল কংগ্রেসের সভাপতি পদের নির্বাচনে নাম প্রত্যাহারের শেষ দিন। একমাত্র রাহুল গান্ধীই সভাপতি পদে মনোনয়ন পেশ করেছিলেন। সে জন্যই এ দিন কংগ্রেসের নির্বাচনী কমিটি আনুষ্ঠানিক ভাবে জানিয়ে দিল রাহুল গান্ধীর জয়ের কথা।

১৯ বছর ধরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সনিয়াই দলের সভাপতি হিসেবে কাজ চালাচ্ছিলেন। কিন্তু, গুজরাটে ভোটের আগে রাহুলের রাজনৈতিক ওজন আরও বাড়াতে চেয়েছিল কংগ্রেস। দলের সভাপতি পদে রাহুলের অভিষেকের পথ চওড়া করতে গত মাসেই ওয়ার্কিং কমিটির বিশেষ বৈঠক ডেকেছিলেন সোনিয়া গান্ধী। সভাপতি পদের নির্বাচনের জন্য গত ১ ডিসেম্বর বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ছিল ৪ ডিসেম্বর। কিন্তু, রাহুল ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র জমা দেননি। প্রার্থীপদ প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল আজ। পূর্ব ঘোষণা ছিল, প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হবে সোমবার বিকেল চারটর সময়। কিন্তু, আর কেউ প্রার্থী না হওয়ায় এ দিন সভাপতি হিসেবে রাহুলের নাম ঘোষণা করল এআইসিসি।

১৬ ডিসেম্বর ৪৭ বছর বয়সী রাহুলের কাছে দলের সভাপতির দায়িত্ব বুঝিয়ে দেবেন বর্তমান সভাপতি ও তার মা সোনিয়া গান্ধী। ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর স্ত্রী সোনিয়া গান্ধী ১৯৯৭ সালে কংগ্রেসের সদস্য হওয়ার পরের বছর, অর্থাৎ ১৯৯৮-এর এপ্রিলে সীতারাম কেশরীকে সরিয়ে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি তাকে সভাপতি মনোনীত করে। তার পর থেকে তিনিই দলের সভাপতি। মাঝে ২০০০ সালে সভাপতি পদের জন্য কংগ্রেসে এক বারই নির্বাচন হয়। সে বার সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছিলেন জীতেন্দ্রপ্রসাদ। কিন্তু, জীতেন্দ্রপ্রসাদকে হারিয়ে ফের সভাপতি পদে নির্বাচিত হন সোনিয়া। তার পর থেকে এখনও পর্যন্ত বিনা প্রতিদ্বন্বি্রতায় সভাপতি পদেই ছিলেন সোনিয়া। এ বার সেই জায়গায় এলেন রাহুল।

আরও দেখুন