বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডে ব্রিটিশদের ক্ষমা চাওয়া উচিত: সাদিক

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ৮, ২০১৭
news-image

জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের জন্য ব্রিটিশদের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে মনে করেন ভারত সফররত লন্ডনের মেয়র সাদিক খান। শুক্রবার জালিয়ানওয়ালাবাগ পরিদর্শনের পর তিনি বলেন, ‘১৯১৯ সালের সেই ভয়াবহ ঘটনা ভোলার নয়। যেভাবে সাধারণ মানুষকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল, তার জন্য ব্রিটিশ সরকারের এবার অন্তত ক্ষমা চাওয়া উচিত।’

দিল্লি-মুম্বাই ঘুরে ভারতের সাদিক খানের সফর শেষ অমৃতসরেই। বৃহস্পতিবারই তিনি স্বর্ণ মন্দিরের শহরে পৌঁছান। এরপর শুক্রবার জালিয়ানওয়ালাবাগ পরিদর্শন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত লন্ডনের এই মেয়র। প্রসঙ্গত, ভারত ব্রিটিশ শাসন চলাকালে ১৯১৯ সালের ১৩ এপ্রিল পাঞ্জাবের অমৃতসরের জালিয়ানওয়ালাবাগে নিরস্ত্র বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া ভারতীয়দের ওপর ব্রিটিশ সেনারা নির্বিচারে গুলি চালায়। ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে সেদিন ৩৭৯ জন ভারতীয়ের মৃত্যুর হিসাব দিলেও বেসরকারিভাবে নিহতের সংখ্যাটা ছিল হাজারেরও ওপর।ওই ঘটনার পর একাধিকবার এই হত্যাকাণ্ডের সমালোচনা করেছে ব্রিটিশ সরকার। কিন্তু এখন পর্যন্ত এই হত্যাকাণ্ডের জন্য একবারও ক্ষমা চায়নি তারা। ১৯৯৭ সালে ভারত সফরে গিয়ে ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ জালিয়ানওয়ালাবাগ পরিদর্শন করেছিলেন। সে সময় হত্যাকাণ্ডের সমালোচনা করলেও ক্ষমা চাননি তিনি। পরে ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনও ভারত সফরে এসে জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছিলেন, তবে তিনিও ক্ষমা চাননি। সম্প্রতি ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ লেবার এমপি বীরেন্দ্র শর্মা জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তেরেসা মের ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি তোলেন। ব্রিটেনের সবচেয়ে সিনিয়র এই লেবার এমপি ব্রিটিশ পার্লামেন্টে একটি ‘আর্লি ডে মোশন’ (ইডিএম) বা প্রস্তাবও পেশ করেছিলেন। আর সর্বশেষ শুক্রবার অমৃতসরে দাঁড়িয়ে লন্ডনের মেয়র সাদিক খানও হত্যাকাণ্ডের জন্য ব্রিটিশ সরকারের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে মত দিলেন। – আনন্দবাজার