শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিশ্বকাপের ড্র শেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ নেই আর্জেন্টিনা

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ২, ২০১৭
news-image

বিশ্বকাপের ড্র শেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ নেই আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্বের প্রতিপক্ষ খুব বেশি শক্তিশালী না হলেও সহজ হবে না সেটি বলাই যায়। তবে গ্রুপ পর্ব এবং কোয়ার্টার ফাইনালের বাধা ঠিকঠাক পেরোতে পারলে কোয়ার্টার ফাইনালে ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়ন স্পেনের মুখোমুখি হতে পারে আর্জেন্টিনা। ফলে ৩২ বছর পর প্রথমবারের মতো শিরোপা জেতার পথে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হবে।

শুধু কোয়ার্টার ফাইনাল নয়; সেমিফাইনালেও কঠিন পরীক্ষার মুখে পড়তে হতে পারে লিওনেল মেসিদের। কোয়ার্টার ফাইনালে বাধা পেরোতে পারলে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে জার্মানির মুখোমুখি হতে পারে আর্জেন্টিনা।

অবশ্য স্পেন-আর্জেন্টিনা ও আর্জেন্টিনা-জার্মানি লড়াই অনেক যদি এবং কিন্তুর ওপর নির্ভর করছে। স্পেন যদি পর্তুগালকে টপকে ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় এবং আর্জেন্টিনা ‘ডি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় তবেই স্পেন-আর্জেন্টিনা কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বৈরথের পথ তৈরি হবে।

‘বি’ গ্রুপে পর্তুগাল ছাড়া স্পেনের অপর দুই প্রতিপক্ষ হলো ইরান ও মরক্কো। স্পেন ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলে শেষ ষোলোতে ‘এ’ গ্রুপ রানার্সআপ রাশিয়া, মিসর কিংবা সৌদি আরবের মুখোমুখি হতে পারে। ‘এ’ গ্রুপ থেকে উরুগুয়ে চ্যাম্পিয়ন হলে তারা মুখোমুখি হবে ‘বি’ গ্রুপ রানার্সআপের। সেক্ষেত্রে নকআউটের প্রথম ধাপে পর্তুগাল ও উরুগুয়ের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

‘ডি’ গ্রুপে আর্জেন্টিনার তিন প্রতিপক্ষ হলো আইসল্যান্ড, নাইজেরিয়া ও ক্রোয়েশিয়া। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে শেষ ষোলোতে পেরুর মুখোমুখি হতে পারে আর্জেন্টিনা। অবশ্য ফ্রান্স যদি ‘সি’ গ্রুপের রানার্সআপ হয় তবে শেষ ষোলোতেই কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে মেসিদের। সেক্ষেত্রে কোয়ার্টার ওঠার লড়াইয়ে ফ্রান্সকে মোকাবেলা করতে হবে আর্জেন্টিনার। পেরু রানার্সআপ হলে দক্ষিণ আমেরিকান প্রতিপক্ষকেই পাবে আর্জেন্টিনা। শেষ ষোলোতে মেসিদের প্রতিপক্ষ হতে পারে ‘সি’ গ্রুপের আরেক দল ডেনমার্কও।

আর্জেন্টিনা ও স্পেন গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলে এবং দুটি দলই যদি শেষ ষোলোর বাধা পেরিয়ে আসে তবে কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে দুবারের চ্যাম্পিয়ন ও ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়নরা। এই দুই দলের মধ্যে জয়ী দলটি সেমিফাইনালে জার্মানির (শর্তসাপেক্ষে) মুখোমুখি হবে।