বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রভিডেন্ট ফান্ডের ঋণ অনুমোদনের পুরো বিষয়টি প্রযুক্তিকেন্দ্রিক করছে কেন্দ্র

News Sundarban.com :
নভেম্বর ৩, ২০১৭
news-image

প্রভিডেন্ট ফান্ডের ঋণ অনুমোদনের পুরো বিষয়টি প্রযুক্তিকেন্দ্রিক করছে কেন্দ্র । সরকারি ফরমান আছে, কোনও পিএফ গ্রাহক ঋণ চাইলে, তা দশ দিনের মধ্যে দিতে হবে। কিন্তু সেই সময়সীমাকে আরও কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রক। তারা জানিয়ে দিয়েছে, এখন থেকে পিএফ থেকে ঋণের জন্য আবেদনের হলে তার অনুমোদন দিতে হবে নিমেষে।
কেন্দ্রীয় সরকারের নিজস্ব অ্যাপের মাধ্যমে ঋণ অনুমোদনের সময়সীমাকে কমিয়ে আনার হচ্ছে বলে দাবি করেছেন পিএফ কর্তারা। তাঁরা বলছেন, যে প্রযুক্তি এসেছে, তাতে ঋণ দেওয়ার বিষয়টিতে আর কোনও অফিসারের আলাদা দায়িত্ব থাকছে না। অর্থাৎ ‘ম্যানুয়্যাল’ পদ্ধতি সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া পিএফ গ্রাহকদের জন্য আলাদা একগুচ্ছ পরিষেবা এনেছে এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশন বা ইপিএফও।
এখন যদি কোনও পিএফ সদস্য অনলাইনে ঋণের জন্য আবেদন করেন, তাহলে তা চলে যায় নয়ডার সেন্ট্রাল সার্ভারে। গোটা দেশে পিএফ-এর ১২০টি আঞ্চলিক অফিস আছে। সেখানে দেখা হয়, কোন অফিসের আওতায় পড়ছে সেই আবেদন। সেখানে আবেদনটি পাঠায় সার্ভার। সংশ্লিষ্ট পিএফ অ্যাকাউন্টটি যে অফিসার দেখভাল করেন, তিনি আবেদনটি খতিয়ে দেখেন এবং তা অনুমোদন করেন।