বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাতিল করা হয়েছে ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রার সব পাসপোর্ট

News Sundarban.com :
নভেম্বর ১, ২০১৭
news-image

থাইল্যান্ডের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রার সব পাসপোর্ট বাতিল করা হয়েছে। তিনি গত মাসে কারাদণ্ডাদেশ এড়াতে দেশ ছেড়ে পালান। ইলাংকের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র সোমবার রাতে বলেছেন, থাইল্যান্ডের দূতাবাসগুলো বিদেশি সরকারগুলোকে জানিয়েছে যে ইংলাক আর থাইল্যান্ডের পাসপোর্টধারী নন। ইংলাকের দুটি ব্যক্তিগত ও দুটি কূটনৈতিক পাসপোর্ট ছিল। উল্লেখ্য, থাইল্যান্ডে ভিসা পাওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যায়। তাই যাঁরা ঘন ঘন বিদেশ সফর করেন, তাঁদের একাধিক পাসপোর্ট থাকে—তথ্য সংশ্লিষ্ট পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের।

প্রসঙ্গত, ক্ষমতায় থাকাকালে চালে ভর্তুকির একটি প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে ইংলাক সিনাওয়াত্রার বিরুদ্ধে করা একটি মামলার রায় ঘোষণার আগে তিনি দেশ ছেড়ে পালান। পরে সেপ্টেম্বরে আদালত তাঁকে পাঁচ বছরের সাজা দেয়। থাই পুলিশ ইংলাকের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে চায়। কিন্তু এখন পর্যন্ত পুলিশের আন্তর্জাতিক সংস্থাটি এমন কোনো পরোয়ানা জারি করেনি।

এদিকে থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডন প্রামুদউইনাই গতকাল মঙ্গলবার বলেন, যুক্তরাজ্য পলাতক ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে রাজনৈতিক আশ্রয় দেবে না। যুক্তরাজ্য সরকার এ বিষয়টি তাদের নিশ্চিত করেছে।