শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাস, ছাড়ার সহজ উপায়

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২৪, ২০১৭
news-image

সাধারণত শিশু বয়সে কিংবা যে বয়সে শিশুরা স্কুলে যায় সে বয়স থেকে শুরু হয় দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাস। এ অভ্যাস দূর করার সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন মা-বাবার সহযোগিতা। বদ অভ্যাস হিসেবে প্রথমে এর শুরু হলেও ভবিষ্যতে এটি তার নিত্যদিনের আচরণে পরিণত হয় যা বিভিন্ন ধরনের মন্দ পরিস্থিতির সৃষ্টি করে।
দাঁত দিয়ে নখ বা নখের পাশের চামড়া কাটার বদ অভ্যাস অনেকেরই থাকে। অনেক সময় মানুষ নিজের অজান্তেই দাঁত দিয়ে নখ কাটতে থাকেন। আসলে এ সবই হয় একটি রোগের কারণে। রোগটির নাম ডার্মাটোফ্যাগিয়া। সাধারণত প্রতি সাতজনে দুই জন এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকেন। তবে অনেক সময় আক্রান্তরা নিজেরাও বোঝেন না যে তারা ডার্মাটোফ্যাগিয়ায় আক্রান্ত। মূলত অত্যধিক মানসিক চাপ বা মানসিক চাপের ওপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরেই মানুষ ডার্মাটোফ্যাগিয়ায় আক্রান্ত হন।
চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় একে বলা হয় ইম্পালস কন্ট্রোল ডিসঅর্ডার ও অবসেসিভ-কম্পালসিভ ডিসঅর্ডার। এই রোগে আক্রান্তদের কয়েকটি উপসর্গ দেখা যায়। উপসর্গগুলো হলো তারা সারাক্ষণ দাঁত দিয়ে নখ কাটেন অথবা নখের পাশের চামড়া খেয়ে ফেলেন। চামড়া উঠে গিয়ে নখের পাশ দিয়ে রক্ত বেরোতেও দেখা যায়। শুধু নখের পাশের নয়, আঙ্গুলের জয়েন্ট বা হাতের তালুর অথবা পায়ের গোড়ালির ফাটা চামড়া খেতেও দেখা যায় এদের। ক্ষতস্থানে জীবাণু আক্রমণের ফলে অনেক সময় স্নায়ুও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। চামড়ার ও নখের রং বদলে যায়।