শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বীরত্বে নতুন করে নববধূর কাছে হিরো হয়ে যাননি ক্লেটন

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭
news-image

কিছুক্ষণ আগে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন ক্লেটন ও ব্রিটানিয়া। এরপর চলছে তাঁদের ছবি তোলার পালা। কানাডার অন্টারিওর পার্ক ব্রিজ ইন ক্যামব্রিজের সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তুলছেন নবদম্পতি। চমৎকার সাজে সেজেছেন দুজনই। অসাধারণ একটা সময় কাটছিল তাঁদের।
ছবি তুলতে তুলতে হঠাৎ করে নতুন বর ক্লেটন লক্ষ করেন, একটি শিশু নদীতে পড়ে গেছে। সতীর্থদের সঙ্গে খেলছিল শিশুটি, হঠাৎ করে একজনের ধাক্কায় জ্লেতে পড়ে যায় সে। এক মুহূর্ত সময় নষ্ট না করে ছুটে গিয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করেন ক্লেটন। পাড়ে ওঠার পর তাঁর সাজ-পোশাক সব ভিজে চুপচুপে হয়ে যায়। তবে সেদিকে এতটুকু ভ্রুক্ষেপ করেননি তিনি।

পুরোটা সময় আলোকচিত্রশিল্পী তুলে যান একের পর এক ছবি। ছবিগুলো পোস্ট করার পর ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়।
গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ক্লেটন বলেন, শিশুটির মুখ জ্লেতে ডুবে গিয়েছিল। সে বাঁচার চেষ্টা করছিল। আর সে খুব ছোট একটা বাচ্চা হওয়ায় তাকে সহজেই তুলতে পারব বলে আশা করেছিলাম আমি।

ওয়েডিং ফটোগ্রাফার ড্যারেন হাট বলেন, ব্রিটানিয়া প্রথমে বাচ্চাটিকে লক্ষ করেন। তিনি নদীর দিকে ছুটে যাচ্ছিলেন। তবে তাঁকে ছাড়িয়ে দ্রুত নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েন ক্লেটন। আমি যখন তাদের কাছে পৌঁছালাম, ততক্ষণে শিশুটিকে উদ্ধার করেছেন ক্লেটন। আর এই সুন্দর ছবিগুলো তোলার লোভ সামলাতে পারিনি আমি।

উদ্ধারের পর বাচ্চাটি বেশ সুস্থই ছিল। একটু নড়েচড়ে দৌড়ে সে চলে যায় তার ভাইদের কাছে।

অবশ্য এই বীরত্বে নতুন করে নববধূর কাছে হিরো হয়ে যাননি ক্লেটন। এসব ব্রিটানিয়া আগেই দেখে অভ্যস্ত। গর্ব করে ব্রিটানিয়া সাংবাদিকদের জানান, স্বামীর উপস্থিত বুদ্ধি, নিঃস্বার্থ উপকারী মনোভাবের কারণেই তাঁকে ভালোবেসেছেন তিনি। বিবিসি অনলাইন