শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশের স্বর্ণমন্দিরের দেখা মিলবে বারুইপুরের পদ্মপুকুর ইয়ুথ ক্লাবে

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭
news-image

বর্তমানের পুজো মানেই থিমের প্যাণ্ডেল। আর সেই থিমের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে প্রতিমার সাজ। একদিকে যখন শহরের পুজো কমিটিগুলো বিভিন্ন থিমের মাধ্যমে মানুষকে আকর্ষণ করতে ব্যস্ত, তখন আরেক দিকে কলকাতার বিভিন্ন আবাসগুলি ব্যস্ত শুধুমাত্র গোটা পুজোটিকে কিভাবে সঠিক প্রথা মেনে উপস্থাপন করা যায় তার পরিকল্পনা করতে। আমি এমন এক পুজোর কথা বলব যেখানে একদম নিয়মনিষ্ঠা মেনে পূজার্চনা হয়ে থাকে।
চলতি বছরে ৭৪ বর্ষে পা রাখল বারুইপুরের পদ্মপুকুর ইয়ুথ ক্লাবের পুজো। তাঁদের এবারের ভাবনা বাংলাদেশের স্বর্ণমন্দির। কাঁথি থকে আসা মণ্ডপশিল্পী তারাপদ গিরি তাঁর কর্মীদের নিয়ে মণ্ডপটিকে তৈরি করে চলেছে। তারাপদবাবু বলেন, পদ্মপুকুর ইয়ুথ ক্লাবের এই প্রচেষ্টাকে আমরা ঠিক সময়ে বাস্তবায়িত করতে দিনরাত কাজ করে চলেছি। আমরা আশা রাখি ঠিক সময়ে আমরা দর্শকদের কাছে পুজোর মূল বিষয়টি উপস্থাপন করতে পারব।
পুজো কমিটির সম্পাদক স্বর্ণদীপ দাস বলেন, আমাদের এই মণ্ডপ করতে সময় লেগেছে পাঁচমাস। সলতেবাতি ও স্পঞ্জের মিশ্রণে এই স্বর্ণমন্দিরকে প্রকৃত রূপ দিতে চলেছেন আমাদের এই মণ্ডপশিল্পী। গতবছরের মতো আমাদের মাটির প্রতিমার ওপর সোনার গয়না দিয়ে সাজানো থাকবে। এবারে আমাদের পুজোর বাজেট প্রায় ২৮ লক্ষ টাকা।
পুজো কমিটির সেক্রেটারি রিন্টু মণ্ডল জানান, প্রতিবছরই আমরা নিরাপত্তার বিষয়টিতে নজর দিই। এইবছর নিরাপত্তা আরও বেশি কড়াকড়ি করা হচ্ছে। চারিদিকে থাকছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এছাড়া থাকছেন জেলার পুলিশ আধিকারিকগণ, সিভিক ভলান্টিয়ার্স ও পুজোর স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ। পুজো উদ্বোধনে আসছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী, স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, সভাপতি গৌতম কুমার দাস প্রমুখ।