বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মেক্সিকোর ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহত হয়েছে অন্তত ২২৬ জন

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭
news-image

মেক্সিকোতে প্রলয়ংকরী ভূমিকম্পে মৃত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২৬-এ। স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১টা ১৪ মিনিটে রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ১ মাত্রার এই ভূমিকম্প আঘাত হানে।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে বলছে, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল রাজধানী মেক্সিকো সিটি থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরের পুয়েবলা রাজ্যের আতেনসিঙ্গোতে। ভূমিকম্পে দেশটির মোরেলোস ও পুয়েবলা রাজ্য দুটিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে।

মেক্সিকোর ন্যাশনাল সিভিল প্রটেকশনের সমন্বয়ক এক টুইটার বার্তায় ২২৬ জনের নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন। এর মধ্যে রাজধানী মেক্সিকো সিটিতে ১১৭, মোরেলোস রাজ্যে ৫৫, পুয়েবলা রাজ্যে ৩৯ জন নিহত হন। এ ছাড়াও কয়েকটি এলাকায় মানুষ হতাহত হয়েছে।

* বিধ্বস্ত ভবনে আটকা পড়ে আছে অনেকেই
* সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মোরেলাস, পুয়েবলা ও মেক্সিকো সিটি
* রিখটার স্কেলে তীব্রতার মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ১
* এ মাসের শুরুতেই এক ভূমিকম্পে দেশটিতে ৯০ জন প্রাণ হারায়

ভূমিকম্পের পরপর কাজ শুরু করেন উদ্ধারকর্মীরা। তবে যোগাযোগব্যবস্থা প্রায় অচল হয়ে পড়ায় উদ্ধারকাজে বিঘ্ন ঘটছে বলে জানিয়েছে সিএনএন। বিদ্যুৎ ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। ৪৪টি স্থানে উদ্ধারকাজ চলছে বলে জানিয়েছেন মেক্সিকো সিটির মেয়র মিগুয়েল অ্যাঙ্গেল টেলেভিসা।

ভূমিকম্পে ধসে পড়া একটি স্কুলে বেশ কিছু শিক্ষার্থী আটকা পড়েছে। তাদের উদ্ধারে কাজ করছে উদ্ধারকারী বাহিনী। মেক্সিকো সিটির ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষক জেনিফার সোয়াডেল বিবিসিকে জানান, ভূমিকম্পের পর তাঁর স্কুলের একটি অংশ ভেঙে পড়েছে। তিনি বলেন, ‘হঠাৎ শ্রেণিকক্ষটি কেঁপে উঠল। তারপরই বিকট শব্দে স্কুলের একটি দেয়াল ধসে পড়ল। তবে তার আগেই আমরা সেখান থেকে সরে এসেছিলাম। সৌভাগ্যবশত এ ঘটনায় আমাদের কেউ হতাহত হয়নি।’

 

ভূমিকম্পে মেক্সিকো সিটিতে একটি ছয়তলা আবাসিক ভবন, একটি সুপার মার্কেট ও একটি কারখানা ভবন ধসে পড়েছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে। মেক্সিকো সিটির দক্ষিণে কোয়াপা জেলায় ধসে পড়া রেবসামেন নামের একটি স্কুল থেকে কয়েকটি শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে সেখানে এখনো অনেকেই আটকা পড়ে আছে।

ভূমিকম্পে ধসে পড়া একটি ভবনের সামনে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন জোয়ান জেসাস গার্সিয়া (৩৩)। তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রী সেখানে আটকা পড়েছে। আমি তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না।’

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পি নিয়েতো দুর্গত এলাকায় জরুরি সেবা কার্যক্রম নির্বিঘ্নে পরিচালনার জন্য সবার সহযোগিতা চেয়েছেন। মেক্সিকো রাজ্যের গভর্নর আলফ্রেড ডেল মাজো মাজা আজ বুধবার স্কুলগুলোতে ছুটি ঘোষণা করেছেন। সেই সঙ্গে জনসাধারণকে বিনা খরচে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার জন্য গণপরিবহনকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

এরই মধ্যে মেক্সিকোর জনগণের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন বিশ্বনেতারা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, যিনি মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তুলে দেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলেন, তিনিও এ ঘটনায় শোকাহত। এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প লিখেছেন, ‘মেক্সিকো সিটির বাসিন্দাদের ওপর সৃষ্টিকর্তা সদয় হোন। আমরা আপনাদের সঙ্গে আছি এবং থাকব।’ কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শোক প্রকাশ টুইট করেছেন।

৩২ বছর আগে ঠিক এ দিনেই ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল মেক্সিকোতে। ওই ভূমিকম্পে নিহত ব্যক্তির সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছিল। ভূমিকম্পনপ্রবণ দেশটির দক্ষিণে চলতি মাসের শুরুতেই ৮ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত ৯০ জন প্রাণ হারায়।