সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বহু বয়স-উত্তীর্ণ টেট শিক্ষক, অভিযোগ যাবে প্রধানমন্ত্রীর ‘মন কি বাত’ দরবারে

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৭
news-image

সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত টেট শিক্ষকদের মধ্যে বহু ‘বয়স-উত্তীর্ণ’ প্রার্থী রয়েছেন। অসংখ্য প্রকৃত প্রার্থীদের নিয়োগে চরম বৈষম্য করেছে রাজ্যের শিক্ষা বিভাগ তথা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক। গুরতর এই অভিযোগ তুলেছে অল আসাম এক্স সার্ভিসম্যান ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন-এর সাউথ জোন পাথারকান্দি।
জোনের সভাপতি প্রাক্তন সুবেদার মেজর নির্মল সিংহ আহূত এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা অধিকর্তা প্রদত্ত এবং সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত বহু বয়সোত্তীর্ণ প্রার্থীর নিয়োগপত্রের প্রতিলিপি তুলে ধরা হয়। নির্মল সিংহ বলেন, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি নিয়োগপত্রে লেটার নম্বর ও ফোলিও নম্বর থাকার কথা। কিন্তু এ সব নিয়োগপত্রে এ ধরনের কিছুই নেই। এখানে বিভাগীয় চরম অবহেলার একটি নগ্ন প্রতিচ্ছবি প্রতিফলিত হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ তুলেছেন।
বলেন, নিয়োগপ্রাপ্ত ‘বয়স-উত্তীর্ণ’ টেট শিক্ষকদের বয়সের বেলায় দেখা গেছে একই মাসে এবং একই বছরে জন্মগ্রহণকারী দুই প্রার্থীর নিয়োগের ক্ষেত্রে একজনকে বয়সের ছাড় দেওয়া হয়েছে ২ বছর ৯ মাসের ব্যবধানে। উদাহরণ তুলে জানান, একজনের জন্ম তারিখ ৩১.৩.১৯৭১, বিপরীতে অন্যজনের ১.৩.১৯৭১, অর্থাৎ এ ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৪ বছর ১০ মাস। অনুরূপ ৩০ জানুয়ারি ১৯৭২-এ জন্মগ্রহণকারী প্রার্থীকে ছাড় দেওয়া হয়েছে ১১ মাস ১ দিন। অথচ মাত্র ১ দিনের জন্মের ব্যবধানের প্রার্থীকে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৪ মাস। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সাম্যতা বজায় না রাখার ফলে ‘বয়স-উত্তীর্ণ’ টেট শিক্ষকদের জীবন বর্তমানে বিপন্ন।