মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অক্টোবরেই দল ছাড়ছেন মুকুল

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৭
news-image

অক্টোবর মাসেই দল ছাড়ছেন মুকুল রায়। এমন জল্পনা রাজ্য রাজনীতি মহলে তুঙ্গে । তাকে ইতিমধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের সহ সভাপতি পদ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তিনি রবিবার থেকেই খান্না সিনেমার কাছে একটি নতুন অফিস খুলে বসেছেন। এবং পুরনো তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ করছেন। এরইমধ্যে মুকুল রায়, সি পি এমের বহিষ্কৃত সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধায়কে সঙ্গে নিয়ে বি জে পি-র পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীর সঙ্গে দলত্যাগের ব্যাপারে এক প্রস্থ কথা বার্তা সেরে ফেলেছেন। কৈলাশ বিজয়বর্গীও জানিয়ে দিয়েছেন, তৃণমূল বা সি পি এম থেকে বি জে পিতে কেউ এলে তাদের আপত্তি নেই।
তৃণমূলের অন্দরমহলের খবর, মুকুল রায়ের সঙ্গে বি জে পিতে যোগ দিতে পারেন দলের আরেক সাংসদ চিত্রতারকা দেব। সম্প্রতি দেবের সঙ্গে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধায়ের দূরত্ব তৈরি হয়েছে। এই পুজোয় দেব তাঁর প্রযোজিত ছবি ‘ককপিট’ রিলিজ করাতে গিয়ে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছেন তার এক সময়ের সুহৃদ প্রযোজক শ্রীকান্ত মেহেতার কাছে। যে ভাবে, যে সব প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি রিলিজ করাতে চেয়েছিলেন, সে ভাবে, সেই সব প্রেক্ষাগৃহে পারেন নি। কেননা শ্রীকান্ত মেহেতার ওপর রয়েছে স্বয়ং দলনেত্রীর আর্শীবাদ। ফলে বেজায় চটেছেন দেব। দ্বারস্থ হয়েছেন মুকুল রায়ের।
দূরত্ব যে ভাবে বাড়ছে, তাতে শীঘ্রই দলের সাংসদ-পদ ছাড়তে হবে মুকুল রায়কে |দুর্গাপুজোর পর সব জল্পনার অবসান ঘটাতে পারেন তিনি। তাঁর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা এই ছুটি নতুন মাত্রা যোগ করেছে। অনুগামীদের একাংশ মনে করছেন, সাংসদ পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানানোর আগে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সারছেন তিনি।