বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এবার ৭৮তম বর্ষে হরি ঘোষ স্ট্রিট সর্বজনীন দুর্গোৎসব

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭
news-image

‘সত্যম শিবম সুন্দরম’- এবার ৭৮তম বর্ষে হরি ঘোষ স্ট্রিট সর্বজনীন দুর্গোৎসবের ক্যাপশন। এ বছরের থিম ‘আমন্ত্রণ’। শোভাবাজার বেনিয়াটোলা দুর্গোৎসব কমিটির বিষয় ‘শুরুয়াৎ’। প্রতি বছরই নজর কাড়ে এই দুটি পুজো। কিন্তু এবার পরিকল্পনা কি ওদের?
৭৮তম বর্ষে হরি ঘোষ স্ট্রিট সর্বজনীন দুর্গোৎসবের ‘সাবেক আর আধুনিকতা মিলিয়ে আমরা থিমকে ধরার চেষ্টা। তবে ঠাকুর দেখে যেন ভক্তি আসে এমন ভাবনা রয়েছে। তাই পুরোনোকে রেখে নতুনকেও ধরার চেষ্টা। পুজোর ট্রেজারার সুরজিৎ সেন, শিল্পী অনিমেষ দাস, প্রতিমাশিল্পী মিন্টু পাল। ৪০ ফুটের বিশাল শিবলিঙ্গ তৈরি করা হবে গোটা মণ্ডপটিতে। তার ভেতরে সাবেক মা দুর্গা থাকবেন। মণ্ডপ তৈরি করতে ব্যবহার করা হবে প্লাই, প্লাস্টার অব প্যারিস, ডেকরেটিং, আর্ট ওয়ার্কের জিনিসও। তা ছাড়া মণ্ডপের সামনেটা সাজানো হবে মহাদেবের আরাধনায় ব্যবহার করা হয় এমন সব জিনিস দিয়ে। যেমন আসল সিঙা, কলকে, ডুগডুগি ইত্যাদি। আর থাকবে বেলপাতাও, তবে তা অবশ্য আসল না। সানমাইকা বোর্ডের তৈরি। বিশাল শিবলিঙ্গের ওপরে জল ঢালা হচ্ছে এমন একটা আবহ তৈরি করা হবে। তার জন্য সত্যিকারের জল নয়, সেই কনসেপ্ট পুরোনো।
শোভাবাজার বেনিয়াটোলার দুর্গাঠাকুর দেখতে গেলে শোভাবাজার মেট্রো স্টেশনে নেমে পায়ে হেঁটে বা অটো করে বেনিয়াটোলা নামলেই সামনেই মণ্ডপ। এ বার বেনিয়াটোলা দুর্গোৎসব কমিটির এ বছরের থিম ‘আমন্ত্রণ’। বিষয় আমন্ত্রণ জানানোর পদ্ধতি। চিঠি তালপাতার ওপরে কলম দিয়ে লেখা হত। তার পর লম্বা পথ পেরিয়ে এল অফসেট প্রিন্ট, ডিজিটাল প্রিন্ট। সেই ধাপে ধাপে বিবর্তন তুলে ধরা হচ্ছে এ বারের থিমে। এখন তো সব ফোনেই শেষ। এটা নয়। তুলে ধরা হচ্ছে ‘শুরুয়াৎ’। যখন মুদ্রণ আসেনি। মূলত সেই সময়টাকে। বাজেট প্রায় ৮ লক্ষ টাকা।