মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এমবাপ্পে-কাভানির ইতিহাস গড়ার রাতে নায়ক নেইমার

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭
news-image

নেইমার, এডিনসন কাভানি আর কিলিয়ান এমবাপ্পেকে নিয়ে গড়া আক্রমণভাগ যে বিশ্বের অন্যতম সেরা তা প্রমাণ হল আরেকবার। স্কটল্যান্ডের সেল্টিককে তাদের মাঠেই ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিযান শুরু করেছে পিএসজি।
মঙ্গলবার রাতে সেল্টিক পার্কে বি গ্রুপের ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে ডান দিক থেকে দানি আলভেসের নিচু ক্রসে এডিনসন কাভানি পা লাগাতে পারলে শুরুতেই এগিয়ে যেতো পিএসজি।
তবে শুরু থেকেই বলের দখল রাখা ফরাসি দলটির বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। ১৯তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণ থেকে দারুণ গোলে পিএসজিকে এগিয়ে দেন নেইমার। আদ্রিওঁ রাবিওর বাড়ানো বল ধরে সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারের বাধা এড়িয়ে গোলরক্ষক ক্রেইগ গর্ডনের মাথার উপর দিয়ে বল পাঠান জালে।
২২তম মিনিটে লি গ্রিফিথসের জোরালো ফ্রি-কিক ফিরিয়ে আয়োজকদের সমতা ফেরাতে দেননি পিএসজি গোলরক্ষক আলফুঁস আরিওলা।
পিএসজির এই মরশুমে নেওয়া আরেক খেলোয়াড় কিলিয়ান এমবাপ্পের গোলে ব্যবধান বাড়ে। উঁচু ক্রসে ডি-বক্সের ডান দিক থেকে হেড করে নেইমার বল দিয়েছিলেন ডি-বক্সের মাঝে দাঁড়ানো কাভানিকে। উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার ঠিকমতো শট নিতে না পারলে বল পেয়ে যান তার ডানে থাকা এমবাপ্পে। পাঁচ গজ দূর থেকে কোনও ভুল করেননি ফ্রান্সের এই ফরোয়ার্ড।
৪০তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন আক্রমণভাগের বাকি সদস্য কাভানি। ক্রোয়েশিয়া ডিভেন্ডার ইয়োগো সিমুনোভিচ ডি-বক্সে তাকে ফাউল করলে, স্পটকিকের বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।
বিরতির পরও প্রতিরোধ গড়তে পারেনি সেল্টিক। ৮৩তম মিনিটে মিকায়েল লুস্তিগের আত্মঘাতী গোলে ম্যাচে ফেরার আশা শেষ হয়ে যায় আয়োজকদের। দুই মিনিট পর লেইভিন কুরজাওয়ার ক্রসে ডাইভ দিয়ে দারুণ হেডে দলের পঞ্চম গোলটি করেন কাভানি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ দশ ম্যাচে তার গোল হল ১০টি। বি গ্রুপের অন্য ম্যাচে নিজেদের মাঠ আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় আন্ডারলেখটকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। শুরুতেই ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া বেলজিয়ামের দলটির জালে গোল তিনটি করেন রবের্ত লেভানদোভস্কি, থিয়াগো আলকান্তারা ও জসুয়া কিমিচ।
কাম্প নু্যয়ে ডি গ্রুপে লিওনেল মেসির নৈপুণ্যে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন ইউভেন্তুসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে দারুণ সূচনা পেয়েছে বার্সেলোনা। আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড করেন জোড়া গোল। ইভান রাকিতিচের অন্য গোলটিতেও ছিল তার ভূমিকা। গ্রুপের অন্য ম্যাচে গ্রিসের অলিম্পিয়াকোসকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে পর্তুগালের স্পোর্তিং।
এ গ্রুপে ঘরের মাঠে সহজ জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সুইজারল্যান্ডের বাসেলকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে জোসে মরিনিহিয়োর দল। গোল তিনটি করেছেন মারোয়ানি ফেলাইনি, রোমেলু লুকাকু ও মার্কাস রাশফোর্ড। গ্রুপের অন্য ম্যাচে পর্তুগালের বেনফিকাকে তাদেরই মাঠে ২-১ গোলে হারিয়েছে রাশিয়ার সিএসকেএ মস্কো। প্রতিপক্ষের জালে গোল উত্সব করেছে ইংল্যান্ডের আরেক ক্লাব চেলসি। সি গ্রুপে আজারবাইজানের দল কারাবাখকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা। ঘরের মাঠে জোড়া গোল করেন মিচি বাতসুয়াই। আর একটি করে করেন পেদ্রো, দাভিদে জাপ্পাকোস্তা, সেসার আসপিলিকুয়েতা ও তিমোয়ে বাকাইয়োকো। গ্রুপের অন্য ম্যাচে ইতালির রোমার মাঠ থেকে গোলশূন্য ড্র করে ফিরেছে স্পেনের আতলেতিকো মাদ্রিদ।