শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এআইএডিএমকে থেকে বহিষ্কার শশিকলা ও তার ভাইপোকে

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭
news-image

তামিলনাড়ুতে ক্ষমতাসীন দল অল ইন্ডিয়া অন্না দ্রাবিঢ় মুন্নেত্রা কাজাগমের (এআইএডিএমক) চিরন্তন সাধারণ সম্পাদকের পদ অলঙ্কৃত করে থাকবেন রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী প্রয়াত জয়রাম জয়ললিতা। পাশাপাশি এআইএডিএমকে থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে ভিকে শশিকলা ও তার ভাইপো টিটিভি দিনকরণকেও।

মঙ্গলবার সকালে চেন্নাইয়ে দলের সাধারণ পরিষদের বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গতবছর তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার মৃত্যুর পর দলের সাধারণ সম্পাদক হয়ে বসেন শশিকলা। ক্ষমতায় এসেই ছড়ি ঘোরাতে শুরু করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে পন্নিরসেলভমকে সরে যেতে বাধ্য করেন। বহিষ্কার করেন দল থেকেও। তারপর নিজের আলাদা এআইএডিএমকে পুরাতচি থালাইভি আম্মা দল গঠন করেন তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী পন্নিরসেলভম। পালানিস্বামী শিবিরের নাম হয় এআইডিএমকে আম্মা।

দুর্নীতির অভিযোগে শশিকলা জেলে যাওয়ার পর পরিস্থিতি বদলায়। ফের কাছাকাছি আসতে শুরু করেন পুরনো দুই সতীর্থ। গত ২১ অগাস্ট ফের মিশে যায় এআইএডিএমকে।

তবে শশিকলাকে বহিষ্কারের শর্তেই দলে ফিরে এসেছিলেন পন্নিরসেলভম। তবে তা বাস্তবায়িত করতে কালঘাম ছুটে গিয়েছে দলীয় নেতৃত্বের। ১৯ জন বিদ্রোহী বিধায়ককে নিয়ে তাদের বিদ্রোহ ঘোষণা করেছেন দিনকরণ।

গত সপ্তাহে দ্বিতীয়বার রাজ্যপাল সি বিদ্যাসাগর রাওয়ের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। আস্থাভোটের অনুমতি চান। মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে পালানিস্বামীকে সরানোরও দাবি তোলেন। সুযোগ বুঝে তার সঙ্গে হাত মেলাতে রাজি ডিএমকে প্রধান এমকে স্ট্যালিন। রোববার রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। দিনকরণের ১৯ বিধায়ককে নিয়ে তাদের মোট বিধায়ক সংখ্যা ১১৯–এ গিয়ে ঠেকেছে বলে জানান। জয়ললিতার মৃত্যুর পর ২৩৪ সদস্যের তামিলনাড়ু বিধানসভায় ১১৭ সদস্যের সমর্থন পেলেই সরকার গড়া যাবে।
দ্য হিন্দুর