বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেই দেশে ফিরবেন মোশাররফ

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৭
news-image

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো হত্যা মামলায় আদালতের মুখোমুখি হতে চান সাবেক স্বৈরশাসক, সেনাপ্রধান পারভেজ মোশাররফ। বর্তমানে তিনি নির্বাসনে দুবাই রয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেনজির হত্যা মামলায় তাকে পলাতক দেখানো হয়েছে। আদালত তার সব সম্পত্তি জব্দ করার নির্দেশ দিয়েছে। এরপর রোববার তিনি বলেছেন, স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেই তিনি দেশে ফিরবেন। মুখোমুখি হবেন আদালতে। মোশাররফের দল অল পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এপিএমএল)কে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। এতে বলা হয়, এপিএমএল সচিবালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার আদালত যে রায় দিয়েছে তা তার বিরুদ্ধে নয়। কারণ, এখনও তার বিরুদ্ধে মামলা স্থগিত অবস্থায় আছে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সাংবাদিক ও লবিস্ট মার্ক সেইগেলের বিবৃতিকে অর্থহীন বলে দাবি করেছেন। ২০১৫ সালে সেইগেল বেনজির হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছিলেন। তাতে তিনি বলেছিলেন, নির্বাসন থেকে পাকিস্তানে ফিরলে করুণ পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে বেনজির ভুট্টোকে হুমকি দিয়েছিলেন মোশাররফ। এর জবাবে মোশাররফ বলেছেন, তার আইনজীবী এ বিষয়টি এরই মধ্যে প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি আরো বলেছেন, তার সম্পত্তি জব্দের নির্দেশের বিষয়টি নিয়ে কাজ করছেন তার আইনী টিম। তিনি ও তার পরিবার এ বিষয়ে শলাপরামর্শ করে যথাযথ পদক্ষেপ নেবেন। তার দাবি, রাজনৈতিক পক্ষপাতী হিসেবে এ মামলায় তাকে অন্যায়ভাবে জড়িত করা হয়েছে। ওদিকে জয়েন্ট তদন্তকারীরা তদন্ত শেষে বলেছেন, মোশাররফের সরকার সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজিরকে আবেদন করা সত্ত্বেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয় নি। বৃহস্পতিবার বেনজির হত্যা মামলায় পাকিস্তানের সন্ত্রাস বিরোধী আদালত তেহরিকে তালিবান পাকিস্তানের সন্দেহভাজন ৫ জনকে বেকসুর খালাস দেয়। দু’জন পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাকে ১৭ বছরের জেল দিয়েছেন। এ মামলায় ৬ জনকে পলাতক দেখানো হয়।